স্টাফ রিপোর্টার :
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আশুগঞ্জের তারুয়ায় গত মঙ্গলবার রাতে দু-পর্ক্ষের সংঘর্ষে ১৫জন আহত হয়েছে। আহতদের জেলা সদর ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুত্বর আহতরা হলো মোবারক হোসেন (৪৫), হুমায়ুন কবীর (৬৫), মিজান মিয়া (৪০), সাচ্চু মিয়া (৪২), বাদশা মিয়া (৬০), মনির হোসেন (২৫)।
এলাকাবাসী জানায়, আতশ বাজি ফোটানোকে কেন্দ্র করে উপজেলার তারুয়া বাজারের পাশ্বে তাবিজ উদ্দিন মুন্সীর বাড়ির জাকির হোসেনের সাথে পাশ্ববর্তী সাবেরের বাড়ির জাহাঙ্গীর মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। পরে প্রতি পক্ষের জাহাঙ্গীর মিয়া, হাবিব মিয়া, আমির শাহ, আক্তার হোসেন, পলাশ মিয়া, নাসির মিয়া নেতৃত্বে তাদের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে তাবিজ উদ্দিন মুন্সীর বাড়ির মোবারক হোসেন রাস্তা দিয়ে বাড়িতে আসার সময় তার উপর হামলা চালিয়ে গুরুত্বর আহত করে এবং তার কাছে থাকা টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়। এ খবর তাবিজ উদ্দিন মুন্সীর বাড়ির লোকজনের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। প্রায় ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১৫জন আহত হয়েছে।
তারুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাদল সাদির জানান, বাজি ফোটানোকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। তবে আহতদের মধ্যে তাবিজ উদ্দিন মুন্সীর বাড়ির মোবারক হোসেনকে আশংকা জনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন জানান, বর্তমানে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।