আন্তর্জাতিক ডেস্ক

 

জাপানে যুদ্ধ জাহাজ পাঠিয়েছে ফ্রান্স

উত্তর কোরিয়ার ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জেরে চলমান চরম উত্তেজনার মাঝেই জাপানে যুদ্ধ জাহাজ পাঠিয়েছে ফ্রান্স। জাপানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে বিশ্বের চার শক্তিশালী দেশের আন্তর্জাতিক এক মহড়ায় অংশ নেবে ওই ফরাসি যুদ্ধ জাহাজ।

বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, স্থল পথে ও সেনাবাহিনীকে সহায়তায় এবং হামলা চালাতে সক্ষম ওই জাহাজ শনিবার জাপানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সাসেবো

নৌ-ঘাঁটিতে ওই জাহাজ পৌঁছেছে। ফ্রান্সের এই যুদ্ধ জাহাজ সেনে জাপান, ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে যৌথ অনুশীলনে অংশ নেবে।

জাপানে এমন এক সময় ফরাসি যুদ্ধ জাহাজ যৌথ মহড়ায় অংশ নিচ্ছে যখন উত্তর কোরিয়ার ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষার পর আরো একটি পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাতে পারে বলে পূর্ব এশিয়ায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে।

জাপানের সেলফ ডিফেন্স বাহিনী বলছে, প্রশান্ত মহাসাগরের গুয়াম ঘাঁটি ও উত্তর মারিয়ানা দ্বীপের জাপানের জলসীমায় আগামী ৩ মে থেকে ২২ মে পর্যন্ত মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। এই মহড়ায় ফ্রান্সের সাতশ সেনা-কর্মকর্তা অংশ নিতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

এছাড়া মার্কিন কর্মকর্তারাসহ ব্রিটিশ নৌবাহিনীর ৬০ নাবিক, জাপানের ২২০ সেনা কর্মকর্তা ফ্রান্সের ওই যুদ্ধজাহাজে যাবেন। জাপানের জয়েন্ট স্টাফের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে বিশ্বাস এবং সহযোগিতা জোরদার ও উন্নত করার লক্ষ্যে ওই মহড়ার আয়োজন করা হয়েছে।

ওই মহড়ায় পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরে মোতায়েন মার্কিন রণতরী ইউএসএস কার্ল ভিনসন নেতৃত্বাধীন দেশটির যুদ্ধবিমানবাহী স্ট্রাইক গ্রুপ মিলিত হবে।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বড় ধরনের সংঘাত হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন। পিয়ংইয়ংয়ের পারমাণবিক কর্মসূচি ঠেকাতে সব ধরনের অপশন আলোচনার টেবিলে রয়েছে বলে ইঙ্গিত দিয়ে দেশটি সামরিক অভিযানের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন ট্রাম্প।