০৩রা মে, ২০১৭ বুধবার

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া : র‍্যাব -১৪ ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যদের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে ভৈরবের কমলগঞ্জ থেকে ৪০০ বোতল ফেন্সিডিল,  ৫২ কেজি গাঁজা পাচারের কাছে ব্যবহ্নত প্রাইভেটকার সহ ২জন মাদক কারবারিকে আটক করেছেন। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত অানুমানিক বারটা পরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে তাদের আটক করেন। আটকৃতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিজয়নগর উপজেলার নুরপুর গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে মোখলেছুর রহমান (২২) হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার রাজার বাজার এলাকার আলতা মিয়ার ছেলে মো. হেলাল মিয়া  (৩০)। র‍্যাব -১৪ ভৈরব ক্যাম্পের সহকারি পরিচালক চন্দন দেবনাথ আমাদের কথা’কে জানান, আমরা গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে জানতে পারি  আখাউড়া সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী ১টি প্রাইভেটকার করে বিভিন্ন ধরনের মাদক নিয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক  ভৈরবের উপর দিয়ে পাচার করে নিয়ে যাবে। তখন আমি ক্যাম্পের অন্যান্য সদস্যদেরকে নিয়ে ভৈরবের কমলগঞ্জ কাছে মহাসড়কে অবস্থান করে চেকপোস্ট বসাই। কিন্তু কিছু সময় অপেক্ষার পর দূর থেকে একটি প্রাইভেটকার আসতে দেখি। তখন চেকপোস্ট চৌকির কাছাকাছি আসলে মাদক ব্যবসায়ীরা আমাদের পোষাক দেখে গাড়ি দাঁড় করে পালানোর চেষ্টা করে, তখন তাদের ধাওয়া করে ধরে ফেলি। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযারী প্রাইভেটকারের ভিতরে বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালিয়ে লুকিয়ে রাখা  ৪০০ বোতল ফেন্সিডিল, ৫২ কেজি গাঁজা উদ্ধার করি এবং তাদের মাদক পাচারের কাজে ব্যবহৃত গাড়িটি জব্দ করি। উদ্ধারকৃত মাদকের বাজার মূল্য প্রায় ( ২,৯২,০০০০) টাকার মত। পরবর্তীতে জব্দকৃত মাদক, গাড়িসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আমাদের ভৈরব ক্যাম্পে নিয়ে আসি। আজ মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জ জেলার  ভৈরব থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার  প্রক্রিয়া চলিতেছে।