০৬ মে, ২০১৭ শনিবার

আমাদের কথা ডেস্ক ঃ ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি জানতে জাতীয় জাদুঘর পরিদর্শনের আগ্রহ প্রায় সবারই আছে। কিন্তু সময় স্বল্পতা, রাজধানী ঢাকার যানজট, কিংবা পথের ঝক্কি-ঝামেলা পেরিয়ে শাহবাগে অবিস্থত জাতীয় জাদুঘরে যাওয়াটা অনেকেই কঠিব মনে করেন।

আর তাদের জন্যই ঘরে বসে ইন্টারনেটে জাদুঘর দেখার সুযোগ করে দিতে ভার্চুয়াল দুনিয়ায় এসেছে জাতীয় জাদুঘর। ৩৬টি গ্যালারির তিন হাজার নিদর্শন নিয়ে জাতীয় জাদুঘরের ‘ভার্চুয়াল গ্যালারি’ যাত্রা শুরু করেছে সম্প্রতি। পৃথিবীর যেকোনো প্রান্ত থেকে যেকোনো ব্যক্তি অনলাইনে এখন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে রক্ষিত সব প্রত্নতত্ত্ব ও ইতিহাস ঐতিহ্যের ছবি দেখতে পাবেন।

জাতীয় জাদুঘরের (bangladeshmuseum.gov.bd/vt) ওয়েবসাইটে প্রবেশের পরই দেখা মিলবে মূল ফটক, সরাসরি জাদুঘরের লবি, ওপরে ওঠার সিঁড়ি। ভেতরে প্রবেশ করে ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে অবলোকন করা যাবে জাদুঘরের অন্তর্গত প্রত্নসম্পদ ও আনুষঙ্গিক নিদর্শনসমূহ। ডানে-বাঁয়ে, চারিদিকে ঘুরিয়ে দেখা যাবে এই গ্যালারি। আর যদি নির্দিষ্ট কক্ষের কোনো নিদর্শন দেখতে চান, তবে মানচিত্র দেখে সরাসরি সে কক্ষেও যাওয়া যায়।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) কর্মসূচি এবং সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের জাতীয় প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের অধীন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের উদ্যোগে এই গ্যালারি তৈরি করা হয়েছে। কারিগরি সহায়তা করেছে ইউএনডিপি ও ইউএসএআইডি।

কিছুদিন আগে চাকরি জন্য রাজশাহী থেকে ঢাকায় আব্দুল্লাহ আল মামুন। বর্তমানে তিনি একটি কোম্পানিতে কর্মরত। ভাচুর্য়াল দুনিয়ায় জাতীয় জাদুঘর আসার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা যারা রাজধানীর বাইরে থাকি তাদের অনেকেরই সুযোগ হয়নি শাহবাগস্থ জাতীয় জাদুঘরে যাওয়ার। কিছুদিন ধরে ঢাকায় এসেছি কিন্তু ব্যস্ততার কারণে এখনও যাওয়া হয়নি জাতীয় জাদুঘরে। যখন জানলাম অনলাইনেই জাতীয় জাদুঘরের নির্দশনগুলো দেখা যাচ্ছে সঙ্গে সঙ্গে তা ভিজিট করার সুযোগ পেলাম।

তিনি বলেন, গ্যালারিতে প্রদর্শিত সব নিদর্শন ও স্টোরে সংরক্ষিত নিদর্শন হতে উল্লেখযোগ্য নিদর্শনগুলো মানসম্পন্ন আলোকচিত্রে ভার্চুয়াল গ্যালারি করা হয়েছে এখানে। ফলে জাতীয় জাদুঘর এখন দেশের জনগণ ও বিশ্ববাসীর হাতের মুঠোয়। এটা আসলেই একটি যুগপোযোগী কার্যক্রম হয়েছ।