বিনোদন ডেস্ক ঃ বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জীবনী নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ‘নলিনী’ শিরোনামের এই সিনেমাটি পরিচালনা করবেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নির্মাতা উজ্জ্বল চ্যাটার্জি। আর সিনেমাটি প্রযোজনা করবেন প্রিয়াঙ্কা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করেছে।

এ প্রসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মা মধু চোপড়া সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘এই সিনেমাটি প্রিয়াঙ্কা যৌথভাবে প্রযোজনা করবে অন্য একটি সংস্থার সঙ্গে। ও রাজি হওয়াতে আমি উচ্ছ্বসিত, তার সঙ্গে ভেতরে ভেতরে কোথায় যেন একটা তৃপ্তিবোধ হচ্ছে।’

প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মা একজন রবীন্দ্র অনুরাগী। তিনি জামশেদপুরে একুশ বছর কাটিয়েছেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শান্তিনিকেতনেও বেশ কয়েকবার গিয়েছেন  তিনি। ছোটবেলায় প্রিয়াঙ্কা তার মায়ের কাছে রবীন্দ্রসংগীত শুনতেন।

সিনেমাটির কাহিনি লিখছেন সাগরিকা চ্যাটার্জি। তবে কাহিনি নিয়ে গবেষণা করছেন একাধিক রবীন্দ্র বিশেষজ্ঞ ও সাংবাদিকের একটি দল। জানা গেছে, কাহিনি তৈরিতে ব্যবহৃত হচ্ছে প্রভাত মুখার্জি, কৃষ্ণা কৃপালিনী, উইলিয়াম রাদিচে ও মিরিয়াড মাইন্ডেডের লেখা বই। আর চিত্রনাট্যের পুরো বিষয়টি নজরদারি করছেন প্রিয়াঙ্কা।

সিনেমাটির কাহিনি প্রসঙ্গে পরিচালক বলেন, ‘সিনেমার বিষয় রবীন্দ্রনাথের জীবনে প্রথম প্রেম। তখন কবির বয়স আঠারো। দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের নির্দেশে তিনি তখন সত্যেন্দ্রনাথের সঙ্গে আমদাবাদে। সত্যেন্দ্রনাথ তাকে ইংরেজি শেখাতে নিয়ে যান শোলাপুরে, পান্ডুরাম থাড়কড়ের কাছে। পান্ডুরাম কিশোর রবিকে পাঠ দেওয়ার জন্য মেয়ে অন্নপূর্ণাকে ভার দেন। মেয়ের বয়স তখন সবে কুড়ি বছর। নীলনয়না অন্নপূর্ণা অক্সফোর্ড-উত্তীর্ণা। পোশাকে-স্বভাবে-কেতায় পুরো সাহেবি। মার্ক স্টিফেন নামের এক ইংরেজের সঙ্গে তার প্রেম চলছিল।  কিন্তু দিন গড়ালে রবীন্দ্রনাথ-অন্নপূর্ণা কী করে যেন পরস্পরের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। কিন্তু সত্যেন্দ্রনাথ এ আভাস পাওয়ার পর বাবাকে বলে পাঠান। তারপর রবিকে বিলেতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।’

তাদের প্রেমের সম্পর্কের মধ্যে প্রেমিকার ইচ্ছেতেই কবি মারাঠি কন্যা অন্নপূর্ণার নাম দেন ‘নলিনী’। তাকে নিয়ে বাঁধেন ‘শুনো নলিনী খোলো গো আঁখি’ শিরোনামে গান। তবে তাদের প্রেম স্থায়ী হয়নি বলে জানান পরিচালক।

সিনেমাটির শুটিং চলতি বছরের নভেম্বরে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। তবে কে কে অভিনয় করবেন তা এখনো ঠিক হয়নি। ‘নলিনী’ চরিত্রে মারাঠি অভিনেত্রী সোনালি কুলকার্নি অভিনয় করতে পারেন। আর সত্যেন্দ্রনাথ চরিত্রে কুণাল কাপুর। একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যেতে পারে যিশু সেনগুপ্তকে। কিন্তু কাস্টিংয়ের পুরো বিষয়টি নিয়ে এখনো ভাবছেন সিনেমা সংশ্লিষ্টরা। এতে সম্পৃক্ত রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও।