আখাউড়া প্রতিনিধি ঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ৮ বিদেশিসহ তাবলীগ জামাতের ১১ সদস্যকে অচেতন করে তাদের মালামাল লুটে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার সেনারবাদী জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন, ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক লুৎফি, মুখলেছ, আহামেদ সালেহ, মো. সুসলিম, আবু সালেহ, মাছ বাকি হাবিবি থাইল্যান্ডের আবু আওয়াল আলে, শাহরুন এবং বাংলাদেশের আহসান হাবিব, মো. ইলিয়াস ও হাফিজুর রহমান। তাদেরকে উদ্ধার করে বুধবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

তাবলীগ জামাতের সাথী আখাউড়ার মো. বিল্লাল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, গত ১২ মে ঢাকার কাকরাইল মসজিদ থেকে তাবলীগ জামাতের ১১ সদস্যের একটি দল আখাউড়ায় আসে। সেখান থেকেই নগরকান্দা এলাকার হাসান পরিচয়ে এক যুবক তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়। দলটি মসজিদে অবস্থানকালে মঙ্গলবার রাতে হাসান তাদের সবাইকে জুস খেতে দেন। জুস খাওয়ার পর পরই সবাই অচেতন হয়ে পড়েন। এরপর হাসান ১১টি মোবাইল, নগদ টাকাসহ অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে পালিয়ে যান।

আখাউড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশাররফ হোসেন তরফদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার খবর পেয়ে ওই মসজিদ এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।