২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেম্বার অব পার্লামেন্ট (এমপি) পদে নির্বাচন করবেন একসময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিল খান। ইতোমধ্যে বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন।

শাকিল খান বলেন, ‘মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। যখনই সুযোগ পাই, কারো জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছি। সেই ভাবনা থেকেই সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ইচ্ছে আমার অনেক দিনের। ক্ষমতাকে মানুষের কল্যাণে লাগিয়ে ভালো কিছু করতে চাই আমি। এরই মধ্যে একটু একটু করে আমি প্রস্তুতি নিচ্ছি। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী নির্বাচনে অংশ নেব।’

‘আমার ঘর আমার বেহেশত’ ছবির এই নায়ক বলেন, ‘আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ইচ্ছে আছে। তবে কোন আসন থেকে প্রার্থী হব সে বিষয়ে এখনই কিছু জানাতে চাচ্ছি না। সময় হলে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী ঘোষণা দেব।’

শাকিল খানের জন্ম চট্টগ্রাম শহরেই। তবে বাগেরহাট-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য এরই মধ্যে মাঠে নেমেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়ের হার্টথ্রব নায়ক শাকিল খান।

বর্তমানে চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে ব্যবসায়ে মনোযোগী শাকিল খান। ব্যবসার পাশাপাশি সামাজিক কাজেও অংশ নিয়ে থাকেন শাকিল খান। চট্টগ্রামে পাবলিক হাসপাতাল নামে একটি ক্লিনিক স্থাপন করেছেন যেখান থেকে দুঃস্থদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। এছাড়া গাজীপুরে বয়স্ক পুনর্বাসন কেন্দ্র স্থাপনের উদ্দেশ্যে জমি কিনেছেন তিনি।

বিনোদনের এর আগে প্রকাশিত সংবাদ-

সম্প্রতি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মিশা সওদাগর। শপথ পাঠ করে ক্ষমতাও বুঝে নিয়েছেন। তবে এবারের নির্বাচন অনেকটাই প্রশ্নবিদ্ধ। নির্বাচনের দিন শাকিবের উপর হামলা, ফলাফল ভুল, ক্ষমতা স্থান্তরের উপর আদালতের নিষেধাজ্ঞা সব কিছু মিলিয়ে বেশ সমালোচিত হয়েছে এবারের নির্বাচন।