বিদ্যুতের সংযোগ নেই, খুঁটির সঙ্গে তারের দেখা মেলেনি, কখনও সংযোগ ছিল না, বিদ্যুতের গ্রাহকও নন টাঙ্গাইলের সখীপুরের মোস্তফা কামাল। তবুও তার নামে ৩৮ হাজার ৭১ টাকার এ কাল্পনিক বিল তৈরি করা হয়েছে।
সখীপুর উপজেলার হাতীবান্ধা ইউনিয়নের তক্তারচালা পাটজাগ বাংলাবাজারের ‘আলেয়া ফার্মেসী’র মালিক ওষুধ ব্যবসায়ী মোস্তফা কামালের নামে এ ভৌতিক বিলটি তৈরি করেছেন স্থানীয় বিদ্যুৎ কার্যালয়ের কর্মকর্তারা।

সংযোগ না থাকলেও ওই বিলে ০২২৮০৮ মিটার নম্বরের বিপরীতে বর্তমানে ব্যবহৃত ইউনিট ৭৮২০ দেখানো হয়েছে।
ওষুধ ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল বলেন, আমার দোকানে বিদ্যুতের কোনো সংযোগ নেই, কখনই ছিল না। তিন বছর আগে বিদ্যুতের সংযোগ চেয়ে আমি সখীপুর বিদ্যুৎ কার্যালয়ে আবেদন করেছিলাম। সংযোগ খরচের জন্য এ এলাকায় নিয়োজিত লাইনম্যান ফারুক হোসেন আমার কাছ থেকে ১০ হাজার টাকাও নিয়েছিল।

তিনি বলেন, সংযোগ না পেয়ে গত এক বছর আগে ওই কার্যালয়ে ঘুরাফেরা বন্ধ করে দিয়েছি। হঠাৎ এ মাসে আমার নামে ৩৮ হাজার ৭১ টাকার বিল পেয়ে আশ্চর্য হলাম।
ওই ব্যবসায়ী আরও বলেন, আমি মোমবাতি জ্বালিয়ে দোকান চালাই। আর সংযোগ ছাড়াই ৩৮ হাজার ৭১ টাকার বিদ্যুৎ বিল! এ কোন দেশে বাস করছি?