নিজস্ব প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সৌন্দর্য্য বর্ধনের পরিবর্তে শহরকে বসবাসের অযোগ্য করে তুলছে পৌরসভা।

বারবার চোখে আংগুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে অযোগ্য, অথর্ব ব্যবস্থাপনার চিত্র। পৌর কর্তৃপক্ষ পুনিয়াউট হতে মধ্যপাড়া পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে পুরো শহরের ময়লা আবর্জনা এনে ফেলে জনজীবন বিপর্যস্ত করে তুলেছে। ময়লার দুর্গন্ধে এলাকার রোজাদার সাধারণ মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে।


পরিবেশ অধিদপ্তর গত ২১/৬/২০১৬ পৌরসভাকে মধ্যপাড়া হতে কাউতলীর কথা উল্লেখ করে ময়লা অাবর্জনা বাড়ি ঘরের অাশেপাশে না ফেলে শহর থেকে দূরে ফেলতে নোটিশ দেয়। অদূর ভবিষ্যতে মানুষ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরে বসবাস করতে পারবে কিনা এই বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর তাদের নোটিশে আশঙ্কা প্রকাশ করে।


নোটিশের পর প্রায় একবছর অতিবাহিত হলেও পৌরকর্তৃপক্ষ তাদের ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ না করে নতুন উদ্যমে এখনো ফেলে যাচ্ছে। এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোবাশ্শির হোসেন রাজিব জানান “ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হবে। কারণ দর্শাতে ব্যর্থ হলে অাইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।”