সরাইল প্রতিনিধি ঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সেলিম মিয়া (৩২) নামে একজন নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তি ডাকাত বলে জানিয়েছে পুলিশ। এসময় সরাইল থানা পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়েছেন।

সোমবার গভীর রাতে উপজেলার বেড়তলা গ্রামে বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে। নিহত ডাকাত সেলিম ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মালিহাতা গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে।

ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দুটি পাইপগান, আট রাউন্ড খালি কার্তুজ, দুই রাউন্ড তাজা কার্তুজ, একটি গ্রিল কাটার ও চারটি বর্শা উদ্ধার করেছে।

সরাইল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রূপক কুমার সাহা আমাদের কথা’কে জানান, সোমবার গভীর রাতে বেড়তলা গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রামবাসীরা সেলিমকে ধরে পুলিশে খবর দেয়। পরে একদল পুলিশ বেড়তলা গ্রামে গিয়ে সেলিমকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার পথে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে।

পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টাগুলি ছোড়ে। এসময় সহযোগীদের ছোড়া গুলিতে ঘটনাস্থলেই সেলিম নিহত হয় এবং পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে দুটি পাইপগানসহ কিছু অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি জানান, নিহত ডাকাত সেলিমের বিরুদ্ধে ডাকাতি, চুরি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে আটটি মামলা রয়েছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।