বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, ‘ঈদের পরেই সরকারের সঙ্গে ফয়সালা হবে। এই ফয়সালা হবে গণতন্ত্রের এবং সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার।’

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নেতাদের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে এক নাগরিক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

দেশে এখন গুণ্ডাদের শাসন ও গুণ্ডাতন্ত্র চলছে এমন দাবি করে দুদু বলেন, ‘আইনের শাসন বলে কিছু নেই। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নেতাদের ওপর আক্রমণেই তাদের (আওয়ামী লীগের) অতীত চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।’

দুদু বলেন, ‘বিএনপির নেতাদের ওপর হামলার প্রতিশোধ নেয়া হবে আগামী দিনে সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা করে ২০ দলীয় জোটকে ক্ষমতায় বসানোর মাধ্যমে। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা এবং বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে।’

সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘যত চেষ্টা আর বিএনপির নেতাদের ওপর ভয়ভীতি প্রদর্শন করুন না কেন ক্ষমতায় আপনারা আর থাকতে পারবেন না।’ তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ভালো করেই জেনে গেছে প্রতিবেশী দেশসহ ইউরোপীয় ইউনিয়ন তাদের সঙ্গে নেই। ক্ষমতা হারানোর ভয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়েই তারা বিএনপির নেতাদের ওপর হামলা করছে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘সময় থাকতে বিএনপির চেয়ারপারসনের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন। ব্যর্থ হলে আপনাকে আন্দোলনের মুখোমুখি হতে হবে। বাংলাদেশের মানুষ অত্যন্ত আন্দোলন প্রিয় অতীতে তারা অনেকবার প্রমাণ দেখিয়েছে। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য তারা যখন আবার ঝাঁপিয়ে পড়বে তখন আপনি ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ এহসানুল হুদার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমতউল্লাহ, ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া প্রমুখ বক্তব্য দেন।