চিত্রনায়ক শাকিব খানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করার ঘটনায় বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন তার স্ত্রী অপু বিশ্বাস। তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে অনিহা প্রকাশ করেছেন।

 তবে তিনি বলেন, কোন শিল্পীকে নিষিদ্ধ করা ঠিক নয়। হুট করেই চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সদস্য পদ বাতিল করাও উচিত নয়। এ বিষয়ে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের আরো ভেবে দেখার অনুরোধ করব।

চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৬টি সংগঠন নিয়ে গঠিত চলচ্চিত্র ঐক্যজোট শুক্রবার রাত ৮ টায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে শাকিব খানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে। বিএফডিসির চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির কার্যালয়ে আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার।

সম্মেলনে মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, ‘জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে বারবার বলা হচ্ছে আমরা যৌথ প্রযোজনার বিরুদ্ধে আন্দোলন করছি। কিন্তু এটা ভুল প্রচার। আমরা যৌথ প্রযোজনার নিয়ম মানা হচ্ছে না বলে আন্দোলনে নেমেছি। আর গেল কয়েক বছর ধরেই এই অনিয়ম করে যাচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও তাদের সহযোগীরা। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু তাদের সাহায্য করে যাচ্ছেন। শাকিব খানও তাদের পক্ষ হয়ে ইন্ডাস্ট্রিকে খাটো করে নানা কথা বলছেন। তাই তাদের চলচ্চিত্র পরিবারের পক্ষ থেকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হলো।’

ঈদের ছুটিতে অফিস বন্ধ উল্লেখ করে গুলজার বলেন, ‘শাকিব ও আজিজ গংদের এই মুহূর্ত থেকে নিষিদ্ধ করা হলো। অফিস খুললে ওদের লিখিত চিঠি পাঠানো হবে।’

এসময় চলচ্চিত্র পরিবারের নেতাকর্মী ও সদস্যরা শাকিবের নাম নিয়ে `শেম শেম` করেন। এদিকে নাদের চৌধুরীর সদস্যপদও খারিজ করেছে চলচ্চিত্র পরিবারের নেতারা।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক আলমগীর, ফারুক, রোজিনা, অঞ্জনা, রিয়াজ, মিশা সওদাগর, জায়েদ খান, পপি, নিঝুম রুবিনা, খোরশেদ আলম খসরু, ডিপজলসহ চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের আরও অনেকে।