২০২১ সাল পর্যন্ত বার্সেলোনার সঙ্গে নতুন চুক্তি করতে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি। চুক্তি ঠিকঠাক মতো হয়ে গেলে মেসিই হবেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার। নতুন চুক্তির আগে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন বার্সা তারকা। শুক্রবার বিয়ে। বিয়ের অনুষ্ঠান আর্জেন্টিনার রোজারিওতে। এখানেই জম্ম ও শৈশবের দিনগুলো কাটিয়েছেন মেসি।

যাকে বিয়ে করছেন সেই আন্তেলিনা রজ্জোকুও রোজারিওর মেয়ে। ২০০৯ সালে মেসি এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমার একজন মেয়ে বন্ধু আছে। সে আর্জেন্টিনাতে থাকে। তার মতো বন্ধু পেয়ে আমি সুখি।’

২০১২ সালের নভেম্বরে বাবা হন মেসি। থিয়াগোর বয়স এখন সাড়ে চার বছর। ২০১৫ সলে দ্বিতীয় ছেলের মাত্তেওর জন্ম। বাবা হওয়ার ৫ বছর পর বিয়েটা সেরে নেওয়ার দরকার বোধ করলেন মেসি। এ বিয়ের অনুষ্ঠানে বাবা মায়ের পাশেই থাকবে দুই সন্তান থিয়াগো এবং মাত্তেও।

বিয়ের অনুষ্ঠানটা হবে বেশ জমকালো। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে প্রায় ২০০ কর্মী। অতিথি হাজার খানেক। আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে দিয়োগো ম্যারাডেনাসহ বার্সেলোনা ও আর্জেন্টাইন দলের মেসির সতীর্থদের। এছাড়া আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের নামি দামি ব্যক্তিদের।

বিশ্বসেরা এই ফুটবলারের বিয়ের খাবারের মেনুতে কী থাকছে তা নিয়ে চারদিকে যখন কৌতূহল, তখন বিয়ের খাবারের মেনু ফাঁস করে দিল আর্জেন্টিনার একটি টিভি চ্যানেল। মেনুতে থাকছে ভেড়ার মাংশের নানা পদ। স্যুপসহ চিকেনের নানা পদ। থাকছে আর্জেন্টাইন স্টেক, সসেস, সুসি। নানা ধরনের সালাদ, ফ্রুটস। রকমারি মিস্টান্ন। আর জুস ও সফট ওয়াটারের সঙ্গে থাকছে দামী বিয়ার।