রাজনীতি আঁকড়ে ধরে আছে অশিক্ষিত ও অর্ধশিক্ষিত লোকেরা বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘রাজনীতিতে এখন শিক্ষাগত যোগ্যতার কারচুপির ঢল নেমেছে। অশিক্ষিত ও অর্ধশিক্ষিতরা শিক্ষিতদের ওপর প্রভাব রাখছে। কিছু কিছু জনপ্রতিনিধি এত ক্ষমতাপরায়ণ যে তাঁদের চাওয়ায় সবকিছু হয়।’

আজ রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দুই দিনব্যাপী ‘বর্ধিত সভা ও কর্মশালা ২০১৬’–এর উদ্বোধনকালে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

গত ২৪ বছরে ডাকসুর নির্বাচন সচল থাকলে আমরা ৪৮ জন নেতা পেতাম উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের বলেন, গণতন্ত্রের জন্য, নেতৃত্ব বিকাশের জন্য ডাকসুর নির্বাচন দেওয়া উচিত। কিন্তু আজ সেটা বন্ধ হয়ে আছে। এ দরজাটা খুলে দেওয়ার জন্য তিনি শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ক্যাম্পাসে মাঝেমধ্যে যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়ে থাকে, সেটি এড়াতে ডাকসুর নির্বাচন দরকার। তবে সেটা সুস্থ নির্বাচন হতে হবে। ছাত্ররাজনীতিকে আকর্ষণীয় করে তুলতে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই। ছাত্র রাজনীতিকে আকর্ষণীয় করে তুলতে ছাত্রনেতাকেও আকর্ষণীয় হিসেবে তৈরি হতে হবে নিজের যোগ্যতা দিয়ে। যেন সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের কাছে নিজেকে আদর্শ ও রোল মডেল রূপে পৌঁছাতে পারে।

ছাত্রনেতাদের বক্তৃতায় ছাত্রদের সমস্যা নিয়ে কথা বলার পরামর্শ দিয়ে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বক্তৃতায় ছাত্রনেতাদের জাতীয় রাজনীতি নিয়ে কথা বলার আগে অবশ্যই ছাত্রদের সমস্যা ও শিক্ষার সমস্যা নিয়ে কথা বলতে হবে। তাহলেই সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের কাছে নিজেকে আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করানো যাবে।
এ সময় মন্ত্রী সাম্প্রতিক সময়ে খ্রিষ্টান ও পুরোহিত হত্যাকাণ্ডসহ যাবতীয় হত্যাকাণ্ডের ইস্যু টেনে বলেন, ‘এসব হত্যাকাণ্ডের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বিদেশি মিত্রদের সঙ্গে সরকারের সম্পর্ক নষ্ট করা। বাংলাদেশকে একটি সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রে পরিণত করা। এ সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদ আমাদের প্রধান সমস্যা, এটির বিরুদ্ধে কাজ করতে হবে।’

ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় আরও বক্তব্য দেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাংসদ আবদুল মান্নান, এ কে এম এনামুল হক শামীম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ সাকিব বাদশা প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।

দুই দিনব্যাপী ছাত্রলীগের এ বর্ধিত সভা এবং কর্মশালায় কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নেতারা ও বিভিন্ন জেলা ও মহানগর শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকেরা অংশ নেন।