আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষকদের বেতন-ভাতা প্রদানের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও বিভাগীয় কমিশনারের স্বাক্ষরে বিল পাস হবে।

নির্বাচনকালীন দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থীরা স্বাক্ষর করতে পারবেন না। সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এমন সিদ্ধান্তের কথা জানা গেছে।  শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বেসরকারি মাধ্যমিক) জাবেদ আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, ‘যারা সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পেয়েছেন, তারা যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সদস্য বা সভাপতি, তারা গভর্নিং বডির বা ম্যানেজিং কমিটির কোনও কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না। বেতন বিলেও স্বাক্ষর করতে পারবেন না। তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক ও বিভাগীয় কমিশনাররা বেতন বিলে স্বাক্ষর করবেন, যাতে শিক্ষকদের বেতন আটকে না যায়। খুব শিগগিরই এ বিষয়ে নির্দেশনা জারি করবে মন্ত্রণাল য়।’

জানা যয়, দলীয় মনোনয়ন পাওয়া ব্যক্তি নির্বাচনকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা পর্ষদের সভাসহ কোনও কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না। নির্বাচন কমিশনের অনুরোধের পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলার জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ কার্যক্রমে থাকবেন শিক্ষকরা। দলীয় মনোনয়ন পাওয়া ব্যক্তিরা যাতে শিক্ষকদের ওপর প্রভাব খাটাতে না পারেন, সে কারণে প্রত্যেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সংশ্লিষ্টদের চিঠি দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।