ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়াকে কেন্দ্র করে কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়াপাল্টা-ধাওয়া, দোকানপাট, বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

রোববার রাতে দফায় দফায় এসব ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে শরীফুল ইসলাম নামে একজনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বাড়িঘরে আগুন দেয়ার ঘটনায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছে। তবে পুলিশ দাবি করেছে, পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রোববার রাতে একদল যুবলীগ কর্মী উপজেলার রায়কোট দক্ষিণ ইউনিয়নের বেতাগাঁও গ্রামে গিয়ে ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে। এতে বিএনপি নেতাকর্মীরা বাধা দিলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।

এতে ২ জন আহত হয়। এ ঘটনার জের ধরে হেলমেট পরিহিত একদল দুর্বৃত্ত বেতাগাঁও গ্রামের বিএনপি কর্মী শফিকের বাড়ি ও দোকানে আগুন ও জালালের বাড়ি ও দোকানে আগুন এবং শাহীন নামে এক ব্যক্তি ঘর আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়।

এ সময় মাওলানা ইব্রাহিম নামে এক ব্যক্তির বাড়ি ভাঙচুর করা হয়। একই সময়ে রায়কোট দক্ষিণ ইউনিয়নের ইলেকশান বাজারে ওই গ্রামের বাসিন্দা ও বিএনপি কর্মী হালিমের দোকান, জয়নাল নামে এক ব্যক্তির হার্ডওয়্যার দোকান, মঘুয়া গ্রামের শাকের নামে এক ব্যক্তির দোকান ও জামায়াত নেতা শামছু উদ্দিনের মার্কেটে ভাঙচুর চালায় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

নাঙ্গলকোট থানার ওসি নজরুল ইসলাম মোবাইল ফোনে জানান, বড় ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।