নির্বাচন উপলক্ষে সড়ক পথে যান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে ভোটের দিন স্বল্প দূরত্বের নৌযান বন্ধ থাকলেও দূরপাল্লার লঞ্চ চলাচল করবে। মঙ্গলবার সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়েছে।

তথ্য বিবরণীতে বলা হয়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ভোট গ্রহণের জন্য ২৯ ডিসেম্বর দিনগত রাত ১২টা থেকে ৩০ ডিসেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত লঞ্চ, ইঞ্জিনচালিত সব ধরনের নৌযান (ইঞ্জিনচালিত ক্ষুদ্র নৌযান বা জনগণ তথা ভোটারদের চলাচলের জন্য ব্যবহৃত ক্ষুদ্র নৌযান ছাড়া) ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ থাকবে।

তবে ভোটার ও জনসাধারণের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম হিসেবে সব নৌযান চলাচলের ক্ষেত্রে এবং দূরপাল্লার নৌযান চলাচলের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না বলে তথ্য বিবরণীতে উল্লেখ করা হয়েছে।

সোমবার ঢাকা জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খানের স্বাক্ষরিত এ বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

এ নিষেধাজ্ঞা রিটার্নিং অফিসারের অনুমতি সাপেক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও তাদের নির্বাচনী এজেন্ট, দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকদের (পরিচয়পত্র থাকতে হবে) ক্ষেত্রে শিথিলযোগ্য। সেইসঙ্গে নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত দেশি-বিদেশি সাংবাদিক (পরিচয়পত্র থাকতে হবে), নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, নির্বাচনের বৈধ পরিদর্শক এবং কতিপয় জরুরি কাজে যেমন- অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগ কার্যক্রমে ব্যবহৃত নৌযান চলাচলের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

তাছাড়া প্রধান প্রধান নৌপথে বন্দর ও জরুরি পণ্য সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরি প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এরূপ নিষেধাজ্ঞা শিথিলের বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন বলেও তথ্য বিবরণীতে উল্লেখ করা হয়েছে।