২৮ মাস ‘একঘরে’ সংখ্যালঘু পরিবারকে আবশেষে হিন্দু মহাজোটের হস্তক্ষেপে সালিশের মাধ্যমে সমাধান,

21 February, 2019 : 9:48 am ১৯৬

অবশেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে সালিশের রায়ে সংখ্যালঘু পরিবার ২৮ মাস যাবত ‘একঘরে’ হয়ে থাকা পরিবারটি জাতীয় হিন্দু মহাজোটের হস্তক্ষেপে গত বুধবার বুড্ডা গ্রামে সালিশ সভার মাধ্যমে স্হানীয় চেয়ারম্যান কাজল চৌধূরী ও জেলা জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সাধারন সম্পাদক প্রবীর চৌধূরী রিপনের উপস্থিতিতে সমস্যার সমাধান হয়। এখন থেকে সামাজিক যে কোনো আচার অনুষ্ঠান কিংবা ধর্মীয় কাজে তাদের অংশগ্রহন করতে পারবে। এতে কেউ কোন ধরনের বাধা দিবে না বলে সালিশ সভায় গ্রামের সকলেই একমত পোষন করেন। নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কাজল চৌধুরী বলেন, দুই বছরের জন্য ‘একঘরে’ করে রাখা হয়েছিল বুড্ডা গ্রামের সুধন মাঝির পরিবারকে। আজকের সালিশে হিন্দু সমাজের মাতব্বররাসহ গ্রামের সকল ধর্মের লোকজন উপস্থিত ছিলেন, সভায় সকলেই সুধন মাঝিকে সকল অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রণ দেওয়া,আসা যাওয়ার ব্যবস্থা করার জন্য একমত হয়।ইতি মধ্যে আমি নানা ভাবে চেষ্টা করে আসছিলাম সুধন মাঝির পরিবারকে কি ভাবে সমাজের লোকজনের সাথে চলাফেরা করতে পারে কিন্তু কয়েক দুষ্ট লোকের কারনে আমি তা পারিনি অবশেষে হিন্দু মহাজোটের হস্তক্ষেপে এ সমস্যার সমাধান করতে পারি এবং হিন্দু মহাজোট কে আমি ধন্যবাদ জানাই  তারা সমাজে এ ধরনের কাজ কারার জন্য।

[gs-fb-comments]