একটানা তিরিশ বছর স্বেচ্ছাশ্রমে শিক্ষার আলো ছড়ানো “আলোর ফেরিওয়ালা” খ্যাত পলান সরকার আর আমাদের মাঝে বেঁচে নেই। বই আর পৃথিবীর মায়া ছেড়ে না ফেরার দেশে আজ চলে গেলেন এই বইপ্রেমি মহান মানুষটি। শুক্রবার দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। পলান সরকারের গ্রামের বাড়ি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মিয়াপাড়ার বাউশা গ্রামে। নিজের টাকায় বই কিনে পাঠকের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিতেন এই পলান সরকার। বই পড়ার এমন আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য তাকে ২০১১ সালে “একুশে পদক” এ ভূষিত করা হয়। তাকে নিয়ে ‘সায়াহ্নে সূর্যোদয়’ নামে একটি নাটকও তৈরি হয়েছে। পলান সরকারের আসল নাম হারেজ উদ্দিন। তবে দেশব্যাপী তিনি পলান নামেই ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন। ১৯২১ সালে জন্ম নেয়া বই পাগল এই গুণী মানুষটি প্রথমদিকে স্থানীয় একটি উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিলি শুরু করেন। শিক্ষার্থীদের মধ্যে মেধা তালিকায় ১ থেকে ১০ ক্রমিক নম্বরদের তিনি একটি করে বই উপহার দিতেন। তবে এর কিছুদিন পর থেকে সবাইকেই বই দেয়া শুরু করেন তিনি। এভাবে পায়ে হেঁটে একটানা ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে বই বিলি করেছেন পলান সরকার। তাঁর মহাপ্রয়াণে আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি