নবীনগর প্রা:শিক্ষক সমিতির নির্বাচন হবে কি

21 March, 2019 : 3:28 pm ৮৮

 

নবীনগর।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি নবীনগর উপজেলা শাখার নির্বাচন নিয়ে শুরু হয়েছে তালবাহানা। সাধারণ শিক্ষকরা শংকা প্রকাশ করছেন গনতান্ত্রিক উপায়ে ব্যালটের মাধ্যমে তাঁরা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবে কি না। সাধারণ শিক্ষকরা গণতান্ত্রিক উপায়ে নির্বাচনে দাবী করে আসলেও নেতৃত্বদানকারি কর্তৃপক্ষ তা আমলে নিচ্ছেন না। নেতৃত্বের একটি শক্তি প্রভাব খাটিয়ে সিলেকশনের মাধ্যমে কমিটি করে নিজেদের আধিপত্য বজায় রাখতে ক্ষমতাশীন দলের এমপিসহ নেতাদের কাছে তদবির করছেন। ক্ষমতাশীন দলের নেতৃবৃন্দরা চাচ্ছেন স্বাধীনতা বিপক্ষের শক্তি ও শরিক সর্মথকদল এবং স্বাধীনতা পক্ষের শক্তির মধ্যে যারা বিতর্কিত যাদের দুর্নাম আছে তাদেরকে বাদ দিয়ে স্বাধীনতার পক্ষে শক্তির দেশপ্রেমিক, শিক্ষকদের কল্যাণে যারা কাজ করবেন সিলেকশন হউক বা নির্বাচনই হউক তারা আসবেন।
বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে একমাস আগেই অথচ জেলা কমিটির নির্দেশনা থাকা সত্বেও ভোটার তালিকা তৈরী হচ্ছে না। সুত্র জানায়,সমিতির নবীনগর উপজেলা শাখার গঠনতন্ত্র মোতাবেক গত ১৭ ফেব্রুয়ারী কার্যনির্বাহী কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। জেলা কমিটি গত ৭ফেব্রুয়ারী এক চিঠিতে ভোটার তালিকা তৈরী করে ২৮ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে অনুমোদনের জন্য পাঠানোর নির্দেশ দেন।
নবীনগর উপজেলা শাখার সভাপতি রেজাউল করিম সবুজ সাধারণ সম্পাদককে দোষারুপ করে বলেন, জেলা কমিটির চিঠির বিষয়টি সম্পাদক গোপন করেছেন। গত ১৫ ফেব্রুয়ারী ভিন্নসুত্রে চিঠির বিষয়টি আমি অবগত হলে তা টের পেয়ে সম্পাদক তাৎক্ষনিক চিঠিটি আমার দৃষ্টিগোচরে আনেন। ওইদিনই ওই চিঠিতে ভোটার তালিকা তৈরীর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুপারিশ করে সম্পাদক মহোদয়কে অনুরোধ করি কিন্তু তিনি এখন পর্যন্ত কোন কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।
এ ব্যাপারে সমিতির সেক্রেটারী মনির হোসেনের সাথে যোগাযোগের চেষ্ঠা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক সাংসদ ফয়জুর রহমান বাদল ও সম্পাদক এম এ হালিম বলেন,বিষয়টি নিয়ে অনেকেই আমাদের সাথে কথা বলেছেন-সমিতি একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান, আমাদের হস্তক্ষেপের কোন বিষয় নেই, এটা তাদের বিষয়, গঠনতন্ত্র মোতাবেক নির্বাচনী প্রক্রিয়া হবে এটাই স্বাভাবিক, তবে আমাদের পরামর্শ যদি সকল শিক্ষকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে গঠনতন্ত্রের মধ্য দিয়ে সিলেকশন করতে পারে ভাল না হলে নির্বাচন ছাড়া কোন বিকল্প নেই। এ ব্যাপারে বর্তমান সাংসদ এবাদুল করিম বুলবুল বলেন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার কোন বিকল্প নেই, তবে সকলে চাইলে দুর্গন্ধযুক্ত বিতর্কিত নেতৃত্বকে বাদ দিয়ে ঐক্যের ভিত্তিতে ভাল নেতৃত্ব খুঁজে সিলেকশন করা যেতে পারে ।

[gs-fb-comments]