এক জন আদর্শ শিক্ষকের কথা

22 March, 2019 : 9:19 am ১৩২

পাঠকের কথা।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার প্রাচীন বিদ্যাপীঠ ” দাউদপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়।এই বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরীতে কর্মরত রয়েছে। এদের বেশির ভাগ অংশই দাউদপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক অাবু মুসা স্যার।যারা অামার মত স্যারের ছাত্র। কিন্তুু অাজ পর্যন্ত ও উপজেলা গঠনের পরও বিচারকদের নজরে অাসেনি। ” শিক্ষক যদি মানুষ গড়ার কারিগর হয়”।তাহলে মানুষ তৈরির মেশিনের কেন মূল্যায়ন হয় না? বাংলাদেশ যদি সঠিক গণতন্ত্রের দেশ হয়, তাহলে ব্যক্তি মত থাকতেই পারে।শিক্ষকরা কোনদিন দল করে না।সঠিক দেশ পরিচালনা করে যে সরকার,সেই সরকার প্রধানই তাঁর দল।২০১৯ সালের শিক্ষা সপ্তাহে দাউদপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক বাবু বিষু দেব শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত করাই অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানাই।কিন্তু যোগ্যতা থাকলে মূল্যায়ন করতে হবে।অাগামী ২০২০ সালের শিক্ষা সপ্তাহে যেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস যেন অাগ্রহের সাথে স্যারের সকল কাগজপত্র ও সুনাম বিবেচনা করে ” উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক ” নির্বাচিত করে সেই দাবী জানাচ্ছি। এর পাশাপাশি উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদ সঠিক মূল্যায়ন করবেন।জয়হোক সঠিক মানুষ গড়ার কারিগরদের।সততা অার অার্দশ কিংবা নিজের ঢোল যে নিজে পিটায় না।স্যারের মতে, অামার ছাত্র বিষু দেব পাওয়া মানে অামি পাওয়া। পরিশেষে অামি কাউকে প্রতিপক্ষ বা হেওয়া করার জন্য নয়।অামার যোগ্যতার ঘাটতে রয়েছে।না হয় যোগ্যতার কাছে গেলে, অবশ্যই একদিন অামি ও শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হতে পারি।

[gs-fb-comments]