নীরবে চলে গেলেন চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠনে মাস্টারদা সূর্যসেনের সহযোদ্ধা আশালতা দেবী

26 March, 2019 : 6:47 am ৩১৮

চট্টগ্রাম।।
উপমহাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের অগ্নিকন্যা আশীতিপর আশালতা সরকার অসুস্থ অবস্থায় তাঁর শ্রীরামপুরের বাড়িতেই ছিলেন। তিনি এতটাই অসুস্থ ছিলেন যে কথা বলার ক্ষমতা পর্যন্ত হারিয়ে যায় তার। অথচ বাংলাদেশ, বাংলা রাজ্য বা দিল্লী কেন্দ্রীয় সরকার কোনও সরকারই তাঁর কোনও খোঁজ রাখে নি।
পূর্ববঙ্গের গাইবান্ধার রংপুরের মেয়ে আশালতা দেবী। ছাত্রাবস্থাতেই স্বাধীনতা আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েন। সালটা ১৯৩০ মাস্টারদা সূর্যসেনর সংস্পর্শে আসেন আশালতা দেবী। পরিচয় হয় প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার, লোকনাথ বল ও গণেশ ঘোষের সঙ্গে। তাঁদের সহযোদ্ধা হিসাবে স্বাধীনতা আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েন। অস্ত্রাগার লু্ণ্ঠনে আশালতা দেবীর সাহস সবার নজর কাড়ে।
স্বাধীনতার পর পশ্চিমবাংলায় থাকাকালীন বিভিন্ন সমাজসেবী কাজকর্মে যুক্ত ছিলেন আশালতা দেবী। ১৯৭২ সালে তত্‍কালীন প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত ইন্দিরা গান্ধী তাঁকে তাম্রফলক দিয়ে সম্মানিত করেন।
বিপ্লবের এই সূর্যসঙ্গীর প্রতি সকল বঙ্গবাসীর পক্ষ থেকে বিনম্র শ্রদ্ধা।

[gs-fb-comments]