ডেস্ক রিপোর্ট।।

মুসলিম প্রধান দেশ ইন্দোনেশিয়ার একটি থিম পার্কে থাকা দুটি নারী ভাস্কর্যের খোলা বুক ঢেকে দেয়া হয়েছে এক টুকরো কাপড় দিয়ে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, প্রাচ্যের ধর্মীয় মূল্যবোধের প্রতি সম্মান জানিয়েই সংশ্লিষ্ট পার্ক কর্তৃপক্ষ ভাস্কর্যের বুক ঢাকার এমন সিদ্ধান্ত নেয়।

বিবিসির প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় অবস্থিত ওই থিম পার্কের নাম আঙ্কল ড্রিমল্যান্ড। গত ১৫ বছর ধরে সেখানে আছে ভাস্কর্য দুটি। সম্প্রতি পার্ক কর্তৃপক্ষ সোনালি রঙা কাপড় দিয়ে রুপকথায় বর্ণিত মৎসনারীর আদলে তৈরি ভাস্কর্য দুটির খোলা বুক ঢেকে দেয়।

ভাস্কর্যের বুক কাপড় দিয়ে ঢেকে দেয়ার এমন দৃশ্য চোখে পড়ার পর শহরের অনেকে দ্বিধান্বিত হয়ে পড়েছেন। তারা প্রশ্ন তুলেছেন, পার্ক কর্তৃপক্ষ কি বাধ্য হয়েই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে?

তবে আঙ্কল ড্রিমল্যান্ড নামের ওই পার্কের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা বলছেন, তারা বাধ্য হয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেয়নি। তারা বলছে, গত বছরেই পার্কে থাকা ওই নারী ভাস্কর্য দুটির খোলা বুক ঢেকে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় তারা।

পার্ক কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র রিকা লেসটারি বিবিসিকে বলেন, ‘এটা একান্তই আমাদের ব্যবস্থাপনা পরিষদের সিদ্ধান্ত। বাইরের কারো চাপে পড়ে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। পার্কটিকে পারিবারসহ দর্শনযোগ্য একটি পার্কে রুপান্তর করার প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবেই এমনটা করা হয়েছে।’

তবে পার্কে থাকা মৎসনারীর আদলে তৈরি ভাস্কর্য দুটির ভাস্কর ডোলোরোসা সিনাগা পার্ক কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন। তিনি বলেন, ‘পার্ক কর্তৃপক্ষ মানুষকে শিল্পের সৌন্দর্য দেখাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তাদের এমন সিদ্ধান্তের কারণে মানুষ শিল্পের সৌন্দর্য উপভোগ করা থেকে বঞ্চিত হবে।