লালমনিরহাট।।

লালমনিরহাটে এক গৃহবধূর গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ তার স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

পাটগ্রাম পৌরসভার নিউ পূর্বপাড়া এলাকায় সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ রোজিনা বেগমে (২১) স্বামীর নাম আব্দুল্লাহ (২৪)।তিনি  ওই এলাকার মোমিন মিয়ার ছেলে। রোজিনার বাবার বাড়ি নীলফামারীর জলঢাকায়।

স্থানীয়রা জানান, বিয়ের পর থেকেই রোজিনাকে নির্যাতন করে আসছেন আব্দুল্লাহ। সোমবার রাতে বাড়িতে কয়েকজন আত্মীয় বেড়াতে আসবে বলে আবদুল্লাহকে জানান রোজিনা। এ কথা শুনে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার এক পর্যায়ে ঘরের ভেতর থেকে কেরোসিন তেলের বোতল এনে রোজিনার শরীরে ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেন তিনি।

তারা জানান, এতে রোজিনার গলাসহ তার শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ পুড়ে যায়। রোজিনার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আব্দুল্লাহকে আটকে পুলিশে খবর দেন এবং রোজিনাকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম হাসাপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে রোজিনার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে পাটগ্রাম থানার ওসি মনসুর আলী বলেন, ওই নারীর স্বামীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।