ব্রাক্ষণবাড়িয়া।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কসবায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে।রবিবার (৭ এপ্রিল) উপজেলার খাড়েরা ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ফারুক মিয়া (২৮) বুধবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ফারুক ওই গ্রামের আব্দুর রশীদের ছেলে।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত রবিবার স্কুল ছুটি হওয়ার পর ওই ছাত্রী বাড়ি ফিরছিল। এ সময় পথিমধ্যে ফারুক মিয়া তার দুই সহযোগী একই গ্রামের শাহরিয়া ও মিঠুর সহযোগিতায় ওই ছাত্রীকে অটোরিকশায় তুলে নিয়ে যান। পরে ফারুক মিয়া ওই ছাত্রীকে নিজ বাড়িতে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ করেন।পরে সোমবার (৮ এপ্রিল) ফারুক ও তার সহযোগীরা চলন্ত অটোরিকশা থেকে ওই ছাত্রীকে বাড়ির পাশে ফেলে রেখে যায়। এ সময় ওই ছাত্রীর আত্মচিৎকার শুনে তাকে উদ্ধার করে বাড়ির লোকজন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে কসবা থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলায় ফারুককে গ্রেফতার করে পুলিশ।ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মালেক বলেন, গ্রেফতার ফারুক আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। মামলার বাকি দুই আসামিকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।