ঢাকা।।

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন আয়োজনের প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনার পর চলতি মাস থেকেই জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে আওয়ামী লীগের সম্মেলন আয়োজনের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। আগামী অক্টোবরে জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ সমকালকে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল শুক্রবার দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের যৌথ সভায় জাতীয় সম্মেলন নিয়ে দিকনির্দেশনা দেবেন। ওই দিকনির্দেশনা অনুযায়ী জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় ২৩, বঙ্গবন্ধু এভিনিউর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের দিন-ক্ষণ এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। তবে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যেই জেলা ও উপজেলা সম্মেলন শেষ করার উদ্যোগ রয়েছে। এ ক্ষেত্রে সভাপতিমণ্ডলীর আট সদস্যের নেতৃত্বে চার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং আট সাংগঠনিক সম্পাদক তৃণমূল পর্যায়ের সম্মেলন কার্যক্রম গুছিয়ে আনার কার্যক্রম শুরু করেছেন। জেলা ও উপজেলা নেতাদের সঙ্গে কথা বলে সম্মেলনের দিন-ক্ষণ নির্ধারণের তাগিদ দিচ্ছেন তারা।

এর মধ্যে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের আওতাধীন জেলা-উপজেলাগুলোর কার্যক্রম দেখভাল করছেন দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। এ দুই বিভাগের কোনো জেলা ও উপজেলায় সম্মেলনের দিন-ক্ষণ এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা নিয়ে অল্প সময়ের মধ্যেই জেলা ও উপজেলা সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু করা হবে।

রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের আওতাধীন জেলা ও উপজেলাগুলোর সাংগঠনিক কার্যক্রম গুছিয়ে আনার কার্যক্রম দেখভাল করছেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক। তিনি বলেন, ২৮ এপ্রিল রংপুরের গঙ্গাচড়া এবং ২৯ এপ্রিল তারাগঞ্জ উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। খুব কম সময়ের মধ্যেই নীলফামারী জেলার বর্ধিত সভায় মেয়াদ-উত্তীর্ণ উপজেলাগুলোর সম্মেলনের দিন-ক্ষণ নির্ধারণ করা হবে।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান দেখভাল করছেন বরিশাল ও খুলনা বিভাগের আওতাধীন জেলা ও উপজেলাগুলোর সাংগঠনিক কার্যক্রম। তিনি জানান, আগামী জুনের মধ্যেই মেহেরপুর পৌরসভা ও গাংনী উপজেলার সম্মেলন করার জন্য স্থানীয় নেতাদের মৌখিকভাবে বলা হয়েছে। আর বরিশাল বিভাগের আওতাধীন জেলা ও উপজেলাগুলোর মেয়াদ সহনশীল অবস্থায় রয়েছে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা গত সোমবার দলের কয়েকজন নীতিনির্ধারক নেতার সঙ্গে আলাপকালে দলের জাতীয় সম্মেলনের প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাহবুবউল আলম হানিফ, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, বিএম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ূয়া, এসএম কামাল হোসেন, মির্জা আজম ও আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম।