নবীনগর।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরনের একদিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ।গত সোমবার রাতে উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রাম থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় খোকন মিয়া (৩৫) নামে এক অপহনণকারীকে আটক করেছে পুলিশ। সে উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রামের আবুল হাসেম মিয়ার ছেলে। এর আগে অপহৃত স্কুল ছাত্রীর বাবা ছিটু মিয়া গোপিনাথপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের বখাটে ছেলে প্রধান অপহরণকারী সুজন মিয়া কে প্রধান আসামী করে চারজনের নামে নবীনগর থানায় একটি অপহরন মামলা করেন।অপর আসামীরা হচ্ছে একই গ্রামের মৃত দানেছ মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম আঞ্জু(৫৫) ও রফিকুল ইসলামের ছেলে মামুন মিয়া (৩২)।
স্থানীয় ও মামলা সুত্রে জানা যায়, উপজেলার নরসিংহপুর গ্রামের ছিটু মিয়ার মেয়ে নবীনগর ইচ্ছাময়ী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরিক্ষা দিয়েছে। সে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে প্রায়ই বখাটে সুজন মেয়েটিকে উক্তপ্ত করত।উক্তপ্তের বিষয়টি মেয়ের বাবা ছেলের অভিভাবককে জানালেও কোন কাজে আসেনি। গত ৫ মে সকালে প্রয়োজনীয় কাজে মেয়েটি গোপিনাথপুর বাজারে গেলে সেখান থেকে তাকে ৪/৫ জনের একটি গ্রুপ জোরপূর্ব সিএনজিতে উঠিয়ে নিয়ে যায়। পরে মেয়েটি বাবা ৫ মে থানায় একটি নিখোজ ডায়রী করে। পুলিশ ডায়রির তদন্তে মেয়েটির সন্ধান পেয়ে অপহরণকারী সুজন মিয়ার বাড়ি থেকে উদ্ধার করে।পরে গত ৬ মে ছাত্রীর বাবার করা সাধারণ ডায়রিটি এজাহারভুক্ত করে একজনকে গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ রনোজিত রায় বলেন,এ মামলায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, মূল আসামীসহ বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।