মহাভারতে দ্রোপদীকে দেয়াভগবান শ্রীকৃষ্ণের শ্রেষ্ঠ কিছু বানী

16 May, 2019 : 5:11 am ১২৯

রিপন।।

মহাভারতে দ্রোপদীকে দেয়া ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শ্রেষ্ঠ কিছু বানী, রাজসভায় উপস্থিত সকল পুরুষদের দ্বারা চরম অপমানিত ও লাঞ্চিত হবার পর দ্রোপদী যখন ইদ্রপ্রস্তে রুদ্ধ দ্বারে নিজকে বন্ধী করেছিলেন তখন বাসুদেব শ্রীকৃষ্ণ দ্রোপদীকে যে সকল
বানী দিয়ে উদ্দিপ্ত করেছিলেন সেই সব উক্তি
ধ্বংস হয়ে যাওয়া মনের মানুষকে জাগিয়ে তুলতে
শ্রেষ্ঠ বানী। শ্রী কৃষ্ণ সখী দ্রৌপদীকে বলছেন-
সখী, নদীর জলে স্নান করে সকলের পাপ
মোচন হয়, কিন্তু নদী কখনো পাপ যুক্ত হয় না এতে।
অধর্ম ও পাপ করেছে কুরুরা তুমি কেন
নিজেকে পীড়ায় আচ্ছন্ন করে রেখেছ সখী?
নদীতে ময়লা পড়লে সেই ময়লা নদী
সমুদ্রের সাথে মিশিয়ে দিয়ে নিজে নির্মল থাকে।
সকলকে ক্ষমা করে দাও এবং নিজের সকল দুঃখকে পরমাত্মার সাথে একিভুত করে নিজেকেগ্লানি মুক্ত কর।
প্রতিশোধ কখনো ধর্ম হতে পারে না,
প্রতিশোধ হলো অধার্মিকের অধর্ম।
তুমি নিজের কথা ভাবছ সখী ?
এক বার ভেবে দেখ চক্রবর্ত্তী সম্রাটের রানী হয়ে
তোমার যদি এই পরিনতি হয় তবে সাধারণ স্ত্রী লোকের কি পরিনতি হবে ওদের হাতে?
শুধু নিজের কথা ভেবোনা সখী, সংসারের কথা ভাব।
নিজের পীড়ায় আবদ্ধ হলে মানুষ শক্তি হীন
হয়ে পরে, আর বিশ্বসংসারের সকলের পীড়ার
কথা মনে করলে মানুষ শক্তিশালী হয়ে উঠে।
নিজের পীড়া দ্বারা বিশ্বসংসারের পীড়াকে অনুভব
কর সখী। দুর্যধনকে ক্ষমা করে দাও সখী,
তোমার ক্ষমাই হবে ওর বিনাসের প্রথম পদক্ষেপ।

[gs-fb-comments]