বাউল সাধকের বাবা রাম গোপাল ও মা উমা অধিকারীর মন্দির ও সমাধীস্থল গুড়িয়ে দিল

19 May, 2019 : 9:24 am ১৩৮

কুষ্টিয়া।।
কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলার জয়ন্তী হাজরা ইউনিয়নের উথলী গ্রামে বাউল সাধক রূপ কুমার অধিকারীর আশ্রম। আশ্রমের মূল ঘরের সামনে বাউল সাধকের বাবা রাম গোপাল ও মা উমা অধিকারীর সমাধীস্থল। তার পাশেই কালী মন্দির। তাতে টিনের ছাউনি আর পাটকাঠির বেড়া। সমাধিস্থল দুটি আটসাট করে ঘেরা ছিল। থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে গত শুক্রবার দুপুরে আশ্রমের কালী মন্দির ও সাধক রূপ কুমারের বাবা আর মায়ের সমাধী গুড়িয়ে দেওয়া হয়। সেখানে বপণ করা হয় শাকের বীজ। ঘটনার বিস্তারিত বিবরণে জানা যায়, দুই বছর আগে সাধক রূপ কুমার অসুস্থ হয়ে পড়লে আশ্রমের জমির আংশিক মালিকানা দাবি করে স্থানীয় প্রভাবশালী বাদশা মন্ডল। এক পর্যায়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও স্থানীয় নেতাদের মধ্যস্ততায় বিষয়টার একটা সমাধান হয়। পরবর্তীতে রূপ কুমার মারা যাওয়ার পর আশ্রমের জমি দখল নেওয়ার জন্য আবারো মরিয়া হয়ে ওঠে বাদশা মন্ডলের নেতৃত্বাধীন প্রভাবশালী চক্রটি। সাথে যোগ দেয় জয়ন্তী হাজরা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আরিফুল ইসলাম নয়ন। এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার দুপুর ১ টায় মন্দির ও সমাধীস্থল গুড়িয়ে দিয়ে সেই দখলকৃত জায়গায় শাকের বীজ বপন করে দেয় বাদশা মন্ডল এবং আরিফের নেতৃত্বাধীন সন্ত্রাসী বাহিনী। গতকাল শনিবার সকালে আশ্রমের পক্ষ থেকে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৪ জনের নামে খোকসা থানায় মামলা করা হয়। মামলার বাদি হয়েছেন আশ্রমের সেবায়েত সমীর বিশ্বাস। এ ঘটনায় জড়িত ইউপি সদস্য আরিফুল ইসলাম নয়ন ও বাদশা মন্ডলকে পুলিশ আটক করেছে। জঘন্য এই ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ এবং ক্ষোভ জানিয়ে এই ঘটনায় জড়িত সকল অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। একটা স্বাধীন দেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর এরকম মগের মুল্লুকের মতো কার্যকলাপ চলতে পারেনা।

[gs-fb-comments]