নবীনগর।।

নবীনগর উপজেলার সলিমগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসককে এ তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসকের নির্দেশে গতকাল বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) মোহাম্মদ সামসুজ্জামান তদন্ত কাজ শুরু করেন। এ সময় নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোকারম হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

তদন্ত টিম যখন স্কুলে পৌঁছে, তখন স্কুলের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা অভিযুক্ত দুই শিক্ষকের বিচারের দাবিতে স্কুল প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ মিছিল করে। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ন্যায়বিচারের আশ্বাস দিয়ে ছাত্রীদের শান্ত করেন। তদন্ত টিম তদন্তকালে নিপীড়িত ছাত্রীদের সাক্ষ্য এবং জামিনে মুক্তি পাওয়া অভিযুক্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার দাস ও আজাহারুল ইসলামের সাক্ষ্য গ্রহণ করে। এ ছাড়া ঘটনার বিষয়ে সাংবাদিকদের বক্তব্য নেয়। ইউএনও বলেন, সুষ্ঠু বিচারের স্বার্থে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অনুযায়ী তদন্ত কাজ চলছে, দ্রুত সময়ের মধ্যে তদন্ত কাজ শেষ করে তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।