চিকিৎসকের গাফিলতি ও ভুল চিকিৎসায় এক শিশুর মৃত্যু

26 September, 2019 : 1:24 pm ১২৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চিকিৎসকের গাফিলতি ও ভুল চিকিৎসায় আলাইন ইসলাম হীরা নামে নয় মাস বয়সী এক শিশু মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে আশংকাজনক অবস্থায় শিশুটিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিশু হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নেয়ার পথে সে মারা যায়। আলাইন ইসলাম হীরা জেলার বিজয়নগর উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের খাটিঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা ও বিজয়নগর উপজেলা উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলামের কন্যা।

শিশুর পিতা জহিরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, তার মেয়ে  চিকিৎসকের গাফিলতি ও ভুল চিকিৎসায় মারা গেছে। তিনি বলেন, তার শিশু কন্যা আলাইমা নিমোউনিয়ায় আক্রান্ত হলে গত রবিবার তিনি তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা করান। পরে সেখান থেকে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিশু হাসপাতালে নিয়ে আসেন। শিশু হাসপাতালে ডাঃ মো. জাকারিয়ার তত্ত্বাবধানে ছিলো আলাইমা।

ডাঃ জাকারিয়া তাকে জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়াতেই আলাইমার চিকিৎসা সম্ভব। শিশু হাসপাতালে প্রথমে দেখার পর দুইদিন তিনি হাসপাতালে আসেননি। কর্তব্যরত অন্যান্য চিকিৎসরা আলাইমাকে চিকিৎসা দেয়।  গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আলাইমার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এ সময় কর্তব্যরত নার্সরা স্যালাইনের ‘পানি’ সিরিঞ্জের মাধ্যমে পুশ করে। এরই মধ্যে আলাইমার অবস্থার আরো অবনতি হতে থাকলে ডাঃ জাকারিয়াকে খবর দিয়ে আনা হয়। তিনি এসে দ্রুত ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেন। স্যালাইনের পানি সিরিঞ্জের মাধ্যমে দেয়ায় কোনো ক্ষতি হয়নি বলে ডাক্তার তাকে জানান। পরে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেয়ার পথে আশুগঞ্জ এলাকায় পৌছার পর মারা যায় আলাইমা।

ডাঃ জাকারিয়া ভুল চিকিসার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,  শিশুটিকে হাসপাতালের ভর্তির পর থেকে ভালোভাবেই তার চিকিৎসা চলছিল। অবস্থার অবনতি হলে বুধবার রাতেই শিশুটিকে ঢাকায় নেয়ার কথা বলা হয়। স্বজনরা না নিয়ে গেলে সকালে তার অবস্থার আরো অবনতি হয়। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থা না থাকায় আমি এসে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলি। তিনি জানান, ওই শিশুকে স্যালাইনের ‘পানি’ সিরিঞ্জের মাধ্যমে দেয়ার বিষয়টি নার্সরা অস্বীকার করেছেন।

[gs-fb-comments]