সোনাক্ষীকে কটাক্ষ করলেন উত্তপ্রদেশের মন্ত্রী

26 September, 2019 : 6:21 am ১০৩

বিনোদন।।

সোনাক্ষীকে কটাক্ষ করলেন উত্তপ্রদেশের মন্ত্রী। কারণ, রামায়ণ সম্পর্কে বিন্দুবিসর্গও জ্ঞান নেই অভিনেত্রীর। ব্যস আর যায় কোথায়! নেটদুনিয়ায় এখন জোর চর্চা ‘এরা নাকি সেলিব্রিটি!’ নেটিজেনদের কটাক্ষ তো শুনতে হচ্ছেই সোনাক্ষীকে উপরন্তু যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যের মন্ত্রীও ছাড়লেন না তাকে একহাত নিতে। রামায়ণ-মহাভারত সম্পর্কে জ্ঞান নেই! কী সব্বনাশ! গোছের ব্যাপারই ছিল খানিক। উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী সুনীল বারলা এবার ‘ধন পশু’ বলে বিঁধলেন অভিনেত্রীকে। যোগীর রাজ্যের লেবার ওয়েলফেয়ার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান তাকে কটাক্ষ করে বলেন, সোনাক্ষীর মতো ব্যক্তিদের পড়াশোনা করার সময় কোথায়! তারা শুধু টাকা রোজগারে আগ্রহী। আধুনিক সময়ে সবাই টাকার পিছনে ছুটছে। এরা শুধুই টাকা রোজগার করতে চায়। সেই অর্থ নিজেদের জন্যে খরচ করে। দেশের ইতিহাস বা ঈশ্বর সম্পর্কে কোনও ধারনা নেই। জানার সময় কোথায় এদের! এর থেকে দুঃখজনক আর কিছুই হতে পারে না। ঘটনার সূত্রপাত ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র মঞ্চে। অমিতাভ বচ্চন সঞ্চালিত এই জনপ্রিয় গেম শোয়ের হটসিটে এর আগেও অনেক তারকারা বসেছেন। মাঝেমধ্যেই ছবির প্রোমোশনে কিংবা টিআরপি বাড়ানোর খাতিরে সেলেবদের দেখা যায় এসব মঞ্চে। সোনাক্ষী সিনহাও সেভাবেই নিমন্ত্রিত হয়ে এসেছিলেন। তবে সেখানে গিয়েই বিপাকে পড়েন তিনি। অনুষ্ঠানে সোনাক্ষীকে জিজ্ঞেস করা হয়, রামায়ণ অনুযায়ী হনুমান কার জন্য সঞ্জীবনী এনেছিলেন? অপশন ছিল চারটি। সুগ্রীব, লক্ষণ, সীতা ও রাম। এই সাধারণ প্রশ্নটার জন্যও লাইফলাইন নিতে হয় সোনাক্ষীকে। শুধু তাই নয়। উপস্থিত দর্শকদের সাধারণ জ্ঞানের উপরও বোধহয় ভরসা ছিল না তার। তিনি হয়তো ভেবেছিলেন তিনি যখন জানেন না, অন্যরাও হয়তো জানবেন না। তাই সরাসরি বিশেষজ্ঞদের মতামত জানতে চান সোনাক্ষী। এরপর থেকেই নেটদুনিয়ার খোরাক হয়ে ওঠেন অভিনেত্রী।

[gs-fb-comments]