বিয়ে করতে এসে বর গেলেন শ্রীঘরে

4 October, 2019 : 10:57 am ৭৮

ব্রাক্ষণবাড়িয়া।।

বিয়ে করতে এসে বর গেলেন শ্রীঘরে। শুক্রবার দুপুরের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলায় এই ঘটনা ঘটে।

সদর উপজেলার নাটাই (দঃ.) ইউপির পশ্চিম ভাটপাড়া এলাকায় কনের বাড়িতে গিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন এবং বরকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন সদরের ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া। বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পাওয়া শিফা আক্তার স্থানীয় আজিজিয়া দারুল কোরআন মহিলা মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ও সদর উপজেলার নাটাই (দঃ.) ইউপির পশ্চিম ভাটপাড়া এলাকার মো. হাবিবুর রহমানের মেয়ে।

সদর ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার নাটাই (দ.) ইউপির পশ্চিম ভাটপাড়া গ্রামের শিফা আক্তারের সঙ্গে একই এলাকার আমিনুল ইসলামের ছেলে মো. দ্বীন ইসলাম দুপুরে বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো। শুক্রবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেয় এবং অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিয়ে করার দায়ে বর মো. দ্বীন ইসলামকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। অপরদিকে মেয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না মর্মে মেয়ের মায়ের কাছ থেকে মুচলেকা আদায় করা হয়। বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

[gs-fb-comments]