আসামে কারফিউ ভেঙেই রাস্তায় নামে মানুষ

12 December, 2019 : 12:08 pm ১০৮

ডেস্ক।।

বিক্ষোভ থামাতে আশ্বাস দিয়েছেন মন্ত্রীরা, টুইট করেছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীও। তাতেও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি)নিয়ে বিক্ষোভ থামেনি ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামে।
এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, বিক্ষোভের মধ্যেই বৃহস্পতিবার গুয়াহাটির পুলিশ প্রধান পদে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এছাড়া ১০ জেলায় ইন্টারনেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত আরো ৪৮ ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে। পুলিশের সাথে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হয়েছে এমন চারটি এলাকায় সেনা উপস্থিতি জোরদার করা হয়েছে।
অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিল ভারত সরকার পাস করেছে তার বিরুদ্ধেই এই বিক্ষোভ।
আনন্দবাজার জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার কারফিউ ভেঙেই রাজ্যের রাজধানী গুয়াহাটির রাস্তায় নেমে আসে সাধারণ মানুষ। নিরাপত্তাবাহিনীর উপস্থিতিতেই জায়গায় জায়গায় বিক্ষোভ করছে তারা। রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করেছে অনেক জায়গায়।এমনকি, ডিব্রুগড়ে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সঙ্ঘের একটি দফতরে তারা হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বিজেপি নেতারা। দফতরের বাইরে বেশ কয়েকটি গাড়িও জ্বালিয়ে দেওয়া হয় বলে দাবি তাদের।নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে গতকাল বুধবারই জ্বলে উঠেছিল আসাম। ছাত্রদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও রাস্তায় নেমে এসেছেন। তবে এ দিন আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছে অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (আসু) এবং কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি (কেএমএসএস)। সাধারণ মানুষকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানিয়েছে তারা। বিক্ষোভ সহিংস রূপ ধারণ করায় গতকাল থেকেই অবরুদ্ধ আসাম। যার ফলে আসাম বিমানবন্দর থেকে অনেকগুলো বিমানে উড্ডয়ন বাতিল করা হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে বেশ কিছু বিমানের অবতরণ।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতিমধ্যেই টুইটারে আসামবাসীর উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আসামিয়া ভাষায় তিনি লেখেন, ‘সিএবি নিয়ে আশঙ্কার কোনও কারণ নেই। কেউ আপনাদের অধিকার কাড়তে পারবে না।

[gs-fb-comments]