হোক কোয়ারেন্টিনের শর্ত ভঙ্গ করায় ২৫ প্রবাসীকে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

28 March, 2020 : 8:47 am ১০৪

ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সদ্য বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টিনের আওতায় আনতে কাজ করে যাচ্ছে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। তাদের তৎপরতায় প্রতিদিনই বাড়ছে হোম কোয়ারেন্টিনের সংখ্যা। অনেক প্রবাসী আবার খামখেয়ালী করে জনস্বাস্থ্যকে ঝুঁকিতে ফেলে প্রবাস থেকে ফিরে আসার তথ্য গোপন করে খোলামেলা চলাফেরা করছে। সেসব প্রবাসীদের প্রায়ই মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। এ পর্যন্ত জেলায় বিভিন্ন সময়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে হোম কোয়ারেন্টিনের আইন ভঙ্গ করায় করোনা আক্রান্ত বিভিন্ন দেশ থেকে ফেরত আসা ২৫ প্রবাসীকে চার লাখ ২২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। শনিবার (২৮ মার্চ) দুপুরে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে প্রস্তুত রাখা আইসোলেশন সেন্টার ইউনিট পরিদর্শনে এসে এমন তথ্য জানান জেলা প্রশাসক হায়াৎ উদ-দৌলা খান।এছাড়াও তিনি জানান, এখন পর্যন্ত জেলায় ২৬৬০ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনের আওতায় আনা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ দিনের মেয়াদ পার হওয়ায় ১৫৩৪ জনকে হোম কায়ারেন্টিন থেকে মুক্ত করা হয়েছে। বর্তমানে ১১২৬ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত কাউকে শনাক্ত করা হয়নি। করোনা প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী, জেলা ও পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টরা আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে। পরে তিনি আইসোলেশন সেন্টার ঘুরে দেখেন এবং এর সার্বিক কার্যক্রম বিষয়ে খোঁজখবর নেন। পরে তিনি হাসপাতালের কার্যক্রম নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে হাসপাতালের পর্যাপ্ততা পর্যালোচনা করেন। পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন- পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান, সিভিল সার্জন ডাক্তার মো. একরাম উল্লাহ, সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. শওকত হোসেন।

[gs-fb-comments]