করোনায় ব্রাক্ষনবাড়িয়ায় দুই জনের মৃত্যু

8 April, 2020 : 5:57 am ১০৬

ব্রাক্ষনবাড়িয়া।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া মালয়েশিয়া ফেরত প্রবাসীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের মকবুলপুর গ্রামের কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে। এর আগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনের রাস্তায় তার জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এতে নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজেদুর রহমান, ওসি (তদন্ত) কবির হোসেন, প্রবাসীর একজন স্বজন ও কয়েকজন চিকিৎসক অংশ নেন।
জানাযার নামাজে ইমামতি করেন উপজেলা কমপ্লেক্স মসজিদের খতিব মূফতি মুখলেছুর রহমান। পরে তার লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে দাফন করা হয়। উল্লেখ্য, ওই ব্যক্তি প্রবাস থেকে ফেরার পর হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। গত ১এপ্রিল তার হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়। কিছুদিন আগে তার রক্তের পরীক্ষা করা হয়। তখন তার রক্তে টাইফয়েড ধরা পরে।
হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হওয়ায় তিনি তার শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যান। সেখানে মঙ্গলবার রাতে শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি মারা যান। তবে কি কারণে তিনি মারা গেছেন পরীক্ষা না করা পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় জেঠাগ্রামে তার শ্বশুর বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। সকালে সেখানে পরিস্থিতি দেখে প্রয়োজনে পুরো গ্রাম লকডাউন করা হবে বলে জানান ইউএনও তার মা, বাবা, ভাই, বোন, স্ত্রী ও ২ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। এদিকে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে ঢাকায় পাঠানো ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরের সেই কৃষক (৪৫) মারা গেছেন। মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন একরাম উল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গতকাল সোমবার (০৬ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার আইয়ুবপুর ইউনিয়নের চরছাউনী গ্রামের বাসিন্দা ওই কৃষককে ঢাকায় পাঠানো হয়। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়। এর আগে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ছিলেন। সিভিল সার্জন একরাম উল্লাহ জানান, সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে জানানো হয়েছে ওই কৃষক আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছে। তবে তিনি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত কিনা তা এখনো জানা যায়নি। তার নমুনা পরীক্ষার পর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

[gs-fb-comments]