জেলা প্রশাসক ও সরাইলের ইউএনওর প্রতাহার দাবী করেছেন সাবেক এমপি

19 April, 2020 : 3:45 pm ১২৫

সরাইল।।

আনসারীর জানাযার ঘটনায় সরাইল থানার ওসির প্রতত্যাহারের সমালোচনা করে ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া -২ আসনের সাবেক এমপি জিয়াউল হক মৃধা। এছাড়ারো তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক ও সরাইলের ইউএনওর প্রতাহার দাবী করেছেন তিনি। তার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো ”হাফেজ মাওলানা জুবায়ের আহাম্মদ আনসারীর জানাজায় লকডাউন ভঙ্গ করা লাখো মানুষের সমাগমকে কেন্দ্র করে ব্যর্থতার দায় পুলিশের উপর চাপিয়ে দিয়ে সরাইল ুথানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে তাৎক্ষণিক প্রত্যাহার করা হয়েছে। আমার প্রশ্ন, দায় কি একা পুলিশের?উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক এরা কি আঙ্গুল চুষছিলেন?
যেকোন সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে প্রাথমিক দায়িত্ব সিভিল প্রশাসনের।নির্বাহী কর্মকর্তা প্রথমশ্রেনীর ম্যাজিষ্ট্রেট,জেলা প্রশাসক, জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট তাদের সিদ্ধান্তই বাস্তবায়ন করে পুলিশ তথা আইন শৃংখলা রক্ষাকারি বাহিনী। জানা গেছে, আনসারি সাহেবের অনুসারীরা মৃত্যুুর পর পরই প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন। প্রশাসন তাদের কী পরামর্শ দিয়েছিলেন? জনগণ তা জানতে চায়।একজন প্রখ্যাত আলেমের মৃত্যুতে সারাদেশের ভক্ত অনুসারীরা এবং সারা দেশের কওমী মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকগণ তাদের শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আসবে,জানাজায় আসবে এটাই স্বাভাবিক। এটা একটা ধর্মীয় আবেগের বিষয় কিন্তু প্রশাসনের ক্ষেত্রে আবেগের কোন মূল্য আছে কি? যেখানে করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং করোনা আতঙ্কে যেখানে পবিত্র মক্কা শরীফের প্রধান ইমাম তারাবিহ নামায এবং ঈদের নামায যার যার বাড়িতে পড়ার অনুরোধ জানিয়েছেন, সেখানে নির্বাহী অফিসার,জেলা প্রশাসক তারা কোন আবেগ দ্বারা পরিচালিত হয়েছিলেন তা জানার অপেক্ষা রাখে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২ নির্বাচনী এলাকার এমপি বিএনপির। বর্তমান দুর্যোগ সময়ে এমপি কিংবা তার কোন প্রতিনিধির খোঁজ খবর নেই। অপরদিকে এই নির্বাচনী এলাকায় জানাযার নামে বিশাল সমাবেশ অনেক প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে।বিগত সংসদ নির্বাচনে ও আমরা দেখেছি নির্বাহী অফিসার,জেলা প্রশাসক,বিভাগীয় কমিশনার তাদের ভূমিকা ছিল রহস্য জনক অর্থাৎ স্রোতের উজানে। আনসারী সাহেবের জানাজার ব্যাপারে সিভিল প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে। এবং তাদের রাজনৈতিক মতাদর্শ নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। মানুষের জীবন মরণ নিয়ে খেলা করার কোন অধিকার আছে কি উপজেলা প্রশাসনের /জেলা প্রশাসনের? জনগণ আরো জানতে চায়, মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর আদেশ নির্দেশ অবজ্ঞা, অবহেলা করার সাহস কি করে পায় উপজেলা প্রশাসন/সিভিল প্রশাসন?ভবিষ্যতে এই ধরণের আইন শৃঙ্খলা ভঙ্গের উদ্যােগ ঠেকাতে এবং দেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে জরুরী ভিত্তিতে সরাইলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং জেলা প্রশাসক কে অবিলম্বে প্রত্যাহার করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

[gs-fb-comments]