ব্রাক্ষনবাড়িয়ায় পৃথক ঘটনায় দুই খুন

30 June, 2020 : 5:13 pm ১৯৪

ব্রাক্ষনবাড়িয়া।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সদর উপজেলার মজলিশপুরে শিশু মিয়া (৬০) ও শহরের বনিকপাড়ায় শুভ (১৭) নামে দুইজন পৃথক ঘটনায় নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার মজলিশপুর ও শহরের বনিকপাড়ায় এসব ঘটনা ঘটে।নিহত শিশু মিয়া সদর উপজেলার মজলিশপুরের মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে ও শুভ জেলা শহরের কান্দিপাড়ার মকবুল হোসেনের ছেলে।পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বাড়ির জায়গা নিয়ে আনন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা শিশু মিয়ার সাথে তার প্রতিবেশি উজ্জল মিয়ার বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ির জায়গার মাটি কাটার সময় উজ্জল মিয়া ও তার লোকজন শিশু মিয়ার উপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হন শিশু মিয়া। পরে তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।এদিকে, শহরের বনিকপাড়ায় তুষার নামের এক যুবকের বোনের সাথে কান্দিপাড়ার শুভ(১৭) নামের এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তুষার একাধিকবার শুভকে তার বোনের সাথে সম্পর্ক রাখতে নিষেধ করে। তুষার শুভকে নিষেধ করায় শুভ তার সহযোগীদের নিয়ে তুষারের উপর একাধিকবার হামলা করে আহত করে। এরই জেরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শুভ তার সহযোগীদের নিয়ে বনিকপাড়ায় যায় তুষারকে খুঁজে মারধোর করতে। এসময় শুভ তুষারকে পেয়ে মারধোর করতে গেলে পূর্ব থেকে তুষার তার সাথে থাকা একটি ছুড়ি দিয়ে শুভর উরুতে আঘাত করে পালিয়ে যায়। গুরুত্বর আহত অবস্থায় শুভকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় প্রেরণ করে। ঢাকায় যাওয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সে শুভ মারা যায়।ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২নং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক সোহাগ রানা জানান, এই ঘটনায় তুষার ও তার সহযোগী প্রান্ত নামের দুইজনকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে তুষারের ব্যবহৃত ছুড়িটি। সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম উদ্দিন জানান, মরদেহগুলো সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে।

[gs-fb-comments]