সংবাদ সম্মেলনে অনিয়ম স্বীকার করে অসুস্থতার ব্যান

২৯ জুলাই, ২০২০ : ৩:৪৪ অপরাহ্ণ ৯৭

নবীনগর।।

সংগঠনের ত্রাণের তালিকায় নিজের পরিবার ও স্বচ্ছল আত্মীয়দের নাম দেওয়ার দায় স্বীকার করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সীতানাথ সূত্রধর। জ্বর থাকায় তালিকা দেখে স্বাক্ষর করতে পারেননি বলে তিনি দাবি করেন। আজ বুধবার বিকেলে স্থানীয় কালীবাড়িতে হওয়া এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি দায় স্বীকার করেছেন।তার   বক্তব্যে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুকে ব্যক্তিগতভাবে আঘাত দিয়ে পারিবারিক মানহানিকর কথা বলেন। পাশাপাশি নানাভাবে হুংকারও ছুড়েন তিনি। একই সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুনীল দেব জীবন এর ভাই সুদীপ দেব বাবুল জানান, ভাইয়ের স্বাক্ষর তিনি নিজেই করেছেন। ভাই অসুস্থ থাকায় তার সঙ্গে কথা বলেই এ কাজটি করেছেন বলে তিনি দাবি করেন।এদিকে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথকে হুমকির ঘটনায় তিনি নবীনগর থানায় সাধারন ডায়রি করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে পারিবারিক মানহানিকর বক্তব্য দেয়ার বিষয়েও তিনি আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে গৌরাঙ্গ দেবনাথের বিরুদ্ধে চাঁদাদাবির অভিযোগ না আনলেও সীতানাথ মৌখিক বক্তব্যে কৌশলী অভিযোগ আনেন। তিনি জানান, ফোনে কথা হলে গৌরাঙ্গ দেবনাথ বলেছেন, বিষয়টি দশ লাখ না এক কোটিতেও শেষ হবে না। যদিও গৌরাঙ্গ দেবনাথের সঙ্গে এ সংক্রান্ত কোনো কথাই সীতানাথের হয়নি।
করোনা মহামারিতে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায়, হতদরিদ্রদের নামের ত্রাণের তালিকায় হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সেক্রেটারি ধণাট্য ব্যবসায়ী সীতানাথ সূত্রধরের পুত্রবধূ, ভাতিজা, ভগ্নি, ভাগ্নে, শ্যালক, শাশুড়িসহ স্বজনদের নাম অন্তর্ভূক্তের ঘটনায় অবশেষে ‘শোকজ’ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাসগুপ্ত স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে সংগঠনটির ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটির সভাপতি দীলিপ কুমার নাগ ও সাধারণ সম্পাদক প্রদ্যুৎ নাগকে শোকজ করেন। ‘কোটিপতি পুত্রবধূ, ভ্রাতুষ্পুত্র, বোন, ভাগ্নে, শাশুড়ি, শ্যালকের নাম তালিকায়’ শীর্ষক দুটি সংবাদ প্রকাশিত হলে, এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়।

[gs-fb-comments]