নাসিরনগরে এক ভূয়া ডাক্তার আটক

8 October, 2020 : 11:28 am ৩৭৭

নাসিরনগর।।

জেলার নাসিরনগর উপজেলার বুড়িশ্বর ইউনিয়নের আশুরাইল গ্রামের বড় বাড়ির মনির মিয়ার ঘর থেকে এক ভূয়া ডাক্তারকে আটক করা হয়েছে। পরে ভ্রাম্যমান আদালতে তিন মাসের জেল ১ লক্ষ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাসের জেল প্রদান করা হয়েছে। ওই ভূয়া ডাক্তারের নাম মোঃ আমিন খাঁন, তার বাড়ি নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার পাড়সিংড়া গ্রামে এবং তার বাবার নাম মোঃ সাবদুল খাঁন বলে জানা গেছে। আমিন খাঁন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহাম্মদ পলক এমপির স্বাক্ষর জাল করে ভূয়া প্রত্যায়ন পত্র তৈরী করে নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে প্রায় দুই বছর যাবৎ দেশের বিভিন্ন স্থানে রোগীদের সাথে প্রতারনা করে আসছে। আমির খাঁন জানায় সম্প্রতি তারা ছয় জনের একটি টিম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিশ্বরোড থেকে বিভিন্ন গ্রামের রোগীদের সাথে চিকিৎসার নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে এমন প্রতারনার কাজ করে যাচ্ছে। ৮ অক্টোবর ২০২০ রোজ বৃহসপতিবার বেলা ১২ ঘটিকার সময় আশুরাইল বড় বাড়ির মনির মিয়ার প্রতিবন্ধী মেয়েকে চিকিৎসা করে সুস্থ্য করার কথা বলে ৫ হাজার টাকা দাবী করে। এ সময় মনির মিয়া বিষয়টি এশিয়ান টিভির সাংবাদিক মোঃ আব্দুল হান্নানকে মোবাইল ফোনে জানাইলে তিনি তাৎক্ষনিক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমা আসরাফি ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কর্মকর্তা ডাক্তার অভিজিৎ রায় কে অবগত করেন। ডাক্তার অভিজিৎ রায়ের নির্দেশে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার সাইফুল ইসলাম, সাংবাদিক আব্দুল হান্নান ও আমিনুল ইসলাম আহাদ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভূয়া ডাক্তার আমির খাঁনকে হাতেনাতে আটক করে। পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিব ম্যাজিষ্ট্রেড তাহমিনা আক্তার সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভূয়া ডাক্তার আমির খাঁনকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দেড় বছরের জেল ১ লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের জেল প্রদান করা হয়।

[gs-fb-comments]