ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়১১৬ টি বিটে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ 

17 October, 2020 : 10:23 am ৪০

ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।

নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অদ্য ১৭-১০-২০২০ খ্রিঃ তারিখ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় ১১৬ টি বিট পুলিশিং এলাকায় একযোগে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনবিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। সমাবেশে সংশ্লিষ্ট বিট এলাকার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমামসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। উপস্থিত বিভিন্ন ব্যক্তিগন মতামত ব্যক্ত করেন যে, নারীর প্রতি সহিংসতা ও যৌন নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমাদের সকলের সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে । সেই সাথে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে এই সাম্প্রতিক অস্থিরতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার মাধ্যমে সমাজে সকলের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে। আজকে আমাদের সামনে যারা উপস্থিত আছেন তারা আমাদের কারও মা, কারও বোন, কারও ভাবি। এরা আমাদের জীবনেরই অংশ।অথচ আমাদের এই মা বোন দেরকে টার্গেট করে কিছু বিকৃত মানসিকতার মানুষ ধর্ষন, শ্লীলতাহানিসহ বিভিন্ন যৌন নির্যাতনের মাধ্যমে আমাদের সমাজকে অস্থির করে তুলেছেন।মানুষ হিসেবে আমাদের মূল্যবোধ ও বিবেকবোধ কে আজকে কঠিন প্রশ্নের সম্মুখীন করেছে। সৃষ্টির জেরা জীব হিসেবে আমরা কখনো এই পশুত্বের কাছে পরাজিত হতে পারিনা।সংশ্লিষ্ট বিট অফিসারগন উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, প্রত্যেকের নিজস্ব অবস্থান থেকেই এই জঘন্য অপরাধকে ঘৃনা ও প্রতিরোধ প্রতিরোধ করতে হবে। আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য হিসেবে আমরা সব সময়ই আপনাদের পাশে রয়েছি।যে সকল দুস্কৃতিকারীরা নারীর প্রতি ধর্ষন, শ্লীলতাহানিসহ বিভিন্নধরনের যৌন হয়রানি করে, তাদের ব্যাপারে আমাদের তথ্য দিন।আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিব।সাম্প্রতিক সময়ে ধর্ষনের প্রকোপ আশংকাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে বর্তমান সরকার ধর্ষনের প্রতি কঠোর অবস্থানে রয়েছেন। আর সে আলোকেই অতি সম্প্রতি ধর্ষনের শাস্তি হিসেবে সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদন্ডের বিধান রেখে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধন করা হয়েছে। আপনারা জেনে খুশি হবেন যে আমাদের প্রতি থানায় একটি করে নারী ও শিশু বান্ধব হেল্প ডেস্ক রয়েছে। সেখানে আপনাদের আইনগত সুরক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও আপনারা ৯৯৯ এ ফোন করে এ সংক্রান্ত কোন তথ্য দিলে আমরা দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নিব। তাছাড়া, বর্তমানে বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে বিট অফিসাররা সব সময় আপনাদের পাশে রয়েছে। উপস্থিত সকলের প্রতি আহবান করে বিট অফিসারগন বলেন আসুন, আমরা আমাদের ছেলে মেয়েদের সম্পর্কে আরও বেশি যত্নবান হই, তাদের ব্যাপারে সব সময় খোজ খবর রাখি।তারা কোথায় যায়, কার সাথে মিশে সে ব্যাপারে খেয়াল রাখি। তাদের ধর্মীয় শিক্ষা ও নৈতিক অনুশীলনের প্রতি জোর দেই।অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রইছ উদ্দিন সদর উপজেলা ১৪ নং বিট সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, দেশের সামাজিক শৃঙ্খলা এবং জনগণের শান্তি ও নিরাপত্তা বিধানকল্পে ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিটি ঘটনায় অপরাধীকে আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে পুলিশ। পুলিশ দেশ এবং জনগণের সেবা ও কল্যাণে সর্বোচ্চ আন্তরিকতা সহকারে সর্বদা কাজ করছে।্এসময় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনবিরোধী পোস্টার, লিফলেট, প্ল্যাকার্ড প্রদর্শনের মাধ্যমে জনসাধারণকে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান এবং এ ধরনের ঘৃণ্য অপরাধের বিরুদ্ধে সচেতন করেন। প্রতিটি সমাবেশ স্ব স্ব বিটের ফেসবুক পেজে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

[gs-fb-comments]