বিজয়নগরে দুইশত বছরের পুরাতন শশ্মান ভাংচুর।।আটক এক

1 November, 2021 : 9:09 am ২৩৪

বিজয়নগর।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার তিতাস নদীর পাড়ে অবস্হিত চান্দুরা পশ্চিম পাড়ার দুইশত বছরের পুরাতন শশ্মানটি ৩১ অক্টোবর গভীর রাতে ভাংচুর করেছে।এই শশ্মানে চান্দুরাসহ আসপাশের গ্রামের লোকজন দাহ করতেন।এটি এই এলাকার একটি ঐতিহ্যবাহী শশ্মান।এঘটনায় পর থেকেই হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।পুলিশ এ ঘটনায় চান্দুরা গ্রামের সামসু মিয়ার ছেলে মুসাব্বিরকে আটক করেছে।সারাদেশব্যপী যখন সাম্প্রদায়িক হামলা বিরাজমান তখনই এই মুহুর্তে বিজয়নগরের চান্দুরা শশ্মানে ভাঙচুর করা হয়েছে।এই শশ্মানটি ভাংচুরের মুল উদ্দেশ কি কেনই বা এই শশ্মানে দুর্বৃত্ত হানা।এঘটনার খবর পেয়ে বিজয়নগর থানার ওসি মির্জাই মোহাম্মদ হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।এব্যাপারে বিজয়নগর থানার ওসির সাথে কথা বললে তিনি জানান,আমরা প্রত্যক্ষ দর্শীদের সাক্ষীর ভিত্তিতে একজনকে আটক করেছি।এর সাথে আরো কেউ জড়িত আছে কি না তা তদন্তের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে।এ ব্যাপারে জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক প্রদ্যুৎ রন্জন নাগ বলেন, এ ঘটনার পিছানের মুল নায়কদেরকে খুজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।
এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটির সভাপতি জয় শংকর চক্রবর্তী তিনি বলেন বার বার কেন আমাদের উপর হামলা আমি মুল হোতাদের খুজে বের করে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবি করছি। জেলা হিন্দু মহাজোটের সাধারন সম্পাদক প্রবীর চৌধূরী রিপন বলেন বিজয়নগরের মধ্যে বার বার চান্দুরায় কেন হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর অত্যাচার। এই শশ্মানটিতে যারা হামলা করেছে তাদের মদদ কারাদেয় তাদের খুজে বের করুন।আমি মনে করি বিজয়নগরে সংখ্যালঘুদের উপর অতীতে যাদের আশ্রয়ে এবং পশ্রয়ে হামলা ভাংচুর নির্যাতন হয়েছে এ শশ্মানের ঘটনায় তরাও জড়িত কিনা খুজে বের করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাই।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com