আমরা সময়ের কথা সময়ে বলি।

Advertisement

নিজে কাদলেন সবাইকে কাদালেন বিদায়ী ডিসি হায়াত-উদ-দৌলা খান

বিশেষ প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, সারাদেশ 18 January 2022 ৩৭২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।

বদলী জনিত কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছেড়ে চলে যাচ্ছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান। জেলা শহরে একের পর এক বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছে তাঁকে। প্রতিটি বিদায় অনুষ্ঠানে তিনি নিজে কাঁদছেন, উপস্থিত সবাইকে কাঁদাচ্ছেন। এভাবে প্রতিদিন আবেগময় বিদায় জানানো হচ্ছে তাঁকে। তাঁর কান্নার ছবি ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে।
দায়িত্ব পালনের ৩ বছর ৩ মাস ১২ দিন পর ৫ জানুয়ারি হায়াত-উদ-দৌলা খানকে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হিসেবে বদলী পূর্বক নিয়োগ দেওয়া হয়। বদলী আদেশ জারি হওয়ার পর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কয়েক দিন ধরে তাঁকে একাধিক বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হচ্ছে।
জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান যোগদান করার পর থেকে হেফাজতের তাণ্ডব, করোনা মহামারি মোকাবিলা, টিকা ব্যবস্থাপনা, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ভূমি ও বাস্তুহারা মানুষদের ঘর তৈরিসহ সরকারি নির্দেশনা ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কাজে কেটে গেল দিনগুলো। আর ২০২১ সালের শেষদিকে ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করার চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে কাজ করেন তিনি।
জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান বলেন, মুজিব বর্ষে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের ঘর দেওয়ার প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত গৃহনির্মাণ কার্যক্রমের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় ৬ হাজার ৯৪ জন ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে তালিকা করা হয়েছে। যাঁরা ‘ক’ তালিকাভুক্ত।যাঁদের ভূমি ও ঘর নেই। এর মধ্যে ২০২১ সালে ২ হাজার ৩২ জনকে ঘর হস্তান্তর করা হয়। আরও ২ হাজার ৫৯ জনকে ঘর দেওয়ার কার্যক্রমও শেষের পথে। এর মধ্যে আখাউড়ায় ৫১৫ এবং কসবায় ১ হাজার ৫৪৪ জন রয়েছে। শিগগির সেগুলো তাঁদের বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এখনো কারও কাছ থেকে ঘরের কাজের ত্রুটির অভিযোগ আসেনি।