সরাইলে ২ পুলিশসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন।। পুলিশ সুপারকে মামলা তদন্তের নির্দেশ

11 May, 2022 : 6:37 pm ৫৬

সরাইল।।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানা পুলিশের হেফাজতে নজির আহমেদ (৪০) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যুর অভিযোগে দুই পুলিশ সদস্যসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলার আবেদন করা হয়েছে। গত রোববার (০৮ মে) মৃত নজিরের স্ত্রী শিরিন সুলতানা বাদী হয়ে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ওই মামলার আবেদন করেন। তবে ওইদিন কোনো আদেশ দেননি বিচারক শারমীন সুলতানা নিগার। আজ বুধবার (১১ মে) বিকেলে মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য পুলিশ সুপারকে (এসপি) নির্দেশনা দিয়েছেন বিচারক। মামলার আবেদনে বলা হয়, সরাইল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ও সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) সাইফুলসহ বাকি আসামিরা গত ২১ এপ্রিল রাতে ব্যবসায়ী নজিরকে বাড়ি থেকে ধরে সরাইল থানায় নিয়ে যায়। এরপর অভিযুক্ত দুই পুলিশ সদস্যসহ বাকিরা নির্যাতন করে নজিরকে হত্যা করে।
মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী নাসির মিয়া বলেন, নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু নিবারণ আইনে মামলার আবেদন করা করেছিলেন বাদী। তবে বিচারক সেদিন (০৮ মে) এ সংক্রান্ত কোনো আদেশ দেননি। বুধবার বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য পুলিশ সুপারকে নির্দেশনা দিয়েছেন।প্রসঙ্গত, গত ২১ এপ্রিল রাতে নজির আহমেদের বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে। এ সময় এক চোরকে আটক করে বাড়ির সদস্যরা। উত্তেজিত স্থানীয়দের উত্তম-মধ্যমে এ সময় গণপিটুনিতে চোর আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে নজির আহমেদসহ চোরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। থানার মধ্যে পুলিশ হেফাজতে থাকা অবস্থায় ব্যবসায়ী নজির আহমেদ মারা যান।
সরাইল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানায়, নজির আহমেদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থতা বোধ করলে তাকে স্থানীয় সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ১৩ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।উল্লেখ্য, মৃত নজির আহমেদ’র সাথে এলাকার প্রতিপক্ষের সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com