মেহেন্দিগঞ্জ প্রতিনিধি // মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার ১২নং দড়িরচর খাজুরিয়া ইউপির চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা রাঢ়ীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ। অভিযোগে জানা যায়, শনিবার রাতে একই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বেপরোয়া নারী কহিনুর বেগম স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে হত্যার উদ্দ্যেশে কুপ দিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। চেয়ারম্যান’র জখম গুরুত্বর না হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। কহিনুর হলেন ওই গ্রামের আলমগীর হোসেন ঢালীর স্ত্রী। এই ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মামলা করবেন বলে সংবাদ কর্মীদের জানান, ঘটনার ব্যাখা দিতে গিয়ে চেয়ারম্যান বলেন, কহিনুর বেগম’র ছেলে তুষার আজিজুল প্রায় ৬ মাস পূর্বে একই ইউনিয়নের মহিন মোল্লার কিশোরী মেয়ে সুরভীকে জোড়পূর্বক বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষন করে আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। এক পর্যায় স্থাণীয়দের চাপের মুখে কিশোরীকে বিয়ে করেন লম্পট তুষার আজিজুল,বিয়ের প্রায় ৫মাসের মাথায় এলাকার অপর এক মেয়েকে নিয়ে উধাও হয়ে যায় তুষার আজিজুল, এই ঘটনার বিচার চেয়ে চেয়ারম্যান’র কাছে লিখিত অভিযোগ করেন সুরভী। চেয়ারম্যান ঘটনার দিন তথা শনিবার তুষার আজিজুল’র বাড়িতে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তুষার আজিজুল’র মা দা দিয়ে কুপিয়ে চেয়ারম্যান’র হাত রক্তাক্ত জখম করেন। স্থানীয়রা এসে চেয়াম্যানকে উদ্ধার করেন। এদিকে চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয় এবং ইউপি সদস্য সদস্যারা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।
"/>

মেহেন্দিগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে জখম

11 March, 2019 : 6:42 am ২২৪

মেহেন্দিগঞ্জ প্রতিনিধি //
মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার ১২নং দড়িরচর খাজুরিয়া ইউপির চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা রাঢ়ীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ। অভিযোগে জানা যায়, শনিবার রাতে একই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বেপরোয়া নারী কহিনুর বেগম স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে হত্যার উদ্দ্যেশে কুপ দিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। চেয়ারম্যান’র জখম গুরুত্বর না হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। কহিনুর হলেন ওই গ্রামের আলমগীর হোসেন ঢালীর স্ত্রী। এই ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মামলা করবেন বলে সংবাদ কর্মীদের জানান, ঘটনার ব্যাখা দিতে গিয়ে চেয়ারম্যান বলেন, কহিনুর বেগম’র ছেলে তুষার আজিজুল প্রায় ৬ মাস পূর্বে একই ইউনিয়নের মহিন মোল্লার কিশোরী মেয়ে সুরভীকে জোড়পূর্বক বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষন করে আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। এক পর্যায় স্থাণীয়দের চাপের মুখে কিশোরীকে বিয়ে করেন লম্পট তুষার আজিজুল,বিয়ের প্রায় ৫মাসের মাথায় এলাকার অপর এক মেয়েকে নিয়ে উধাও হয়ে যায় তুষার আজিজুল, এই ঘটনার বিচার চেয়ে চেয়ারম্যান’র কাছে লিখিত অভিযোগ করেন সুরভী। চেয়ারম্যান ঘটনার দিন তথা শনিবার তুষার আজিজুল’র বাড়িতে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তুষার আজিজুল’র মা দা দিয়ে কুপিয়ে চেয়ারম্যান’র হাত রক্তাক্ত জখম করেন। স্থানীয়রা এসে চেয়াম্যানকে উদ্ধার করেন। এদিকে চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয় এবং ইউপি সদস্য সদস্যারা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com