ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক চেয়ারম্যান প্রার্থী গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের গরু জবাই করে আপ্যায়ন করার অভিযোগ

19 March, 2019 : 2:47 am ১৪৫

ব্রাক্ষণবাড়িয়া ঃ

ভোটের মাঠে প্রচার-প্রচারণার ক্ষেত্রে প্রার্থীদের আচরণবিধি লঙ্ঘন নতুন কিছু নয়। রঙিন পোস্টার-ব্যানার লাগিয়ে আচরণবিধি লঙ্ঘন ও প্রতিপক্ষকে হুমকির অভিযোগ প্রায়ই শোনা যায়। তবে গরু জবাই করে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের আপ্যায়ন করার অভিযোগ আগে কখনও শোনা যায়নি!আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজুর রহমান ওলিওর বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. জাহাঙ্গীর আলম।শনিবার (১৬ মার্চ) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং কর্মকর্তা সাহেদুল ইসলামের কাছে নির্বাচনী বিধি লঙ্ঘন করে দেয়ালে পোস্টার লাগানো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উসকানিমূলক বক্তব্য ছড়ানোসহ গরু জবাই করে ভোটারদের আপ্যায়নের বিষয়ে পৃথক দুটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম।ওলিও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য। আনারস প্রতীক নিয়ে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনিও চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।লিখিত অভিযোগ দুটিতে বলা হয়, স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজুর রহমান ওলিও নির্বাচনে গোলযোগ সৃষ্টির জন্য বিভিন্ন উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করছেন। তার এসব বক্তব্য ফেসবুকে বিভিন্ন আইডি থেকে সরাসরি প্রচার করা হয়েছে। পাশাপাশি ওলিও সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের রাধিকা গ্রামে তার নিজ বাড়িতে প্রতিদিন গরু জবাই করে দিনব্যাপী ভোটারদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করছেন। এ আপ্যায়ন সূর্যদয় থেকে শুরু হয়ে গভীর রাত পর্যন্ত চলে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।ওলিওর এ আপ্যায়ন কর্মকাণ্ড নির্বাচনী আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগে আরও বলা হয়, ওলিও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েও আওয়ামী লীগের স্লোগান ‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’ লিখে ভোটারদের বিভ্রান্ত করছেন। এ সব বিষয়ে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে অভিযোগে।তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফিরোজুর রহমান ওলিও বলেন, আপনারা সাংবাদিকরা জেনে দেখেন বা গোয়েন্দা লাগান যে আমি গরু জবাই করে খাওয়াই কিনা। আর আমার বাড়িতে মেহমান এলে আমি খাওয়াব না? আমি ভাত খাব না? আর জয় বাংলা কোনো দলের স্লোগান নয়, এটি বাংলাদেশের স্লোগান।তিনি আরও বলেন, আমি ফেসবুকে উসকানিমূলক বক্তব্য প্রচার করেছি এটা ওনাকে (জাহাঙ্গীর আলম) দেখাতে বলেন। উল্টো উনি আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন, ২০ মার্চের পর আনারসের কোনো অফিস তারা রাখবেনা বলে হুমকি দিচ্ছে। এ বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করবেন বলেও জানান ওলিও।এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং কর্মকর্তা সাহেদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগের বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রমাণিত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com