বই বিক্রীর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল

23 April, 2019 : 10:12 am ১৭১

 

নবীনগর।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে সরকারি বিধি বিধান লংগন করে ইচ্ছাময়ী বালিকা বিদ্যালয়ের বই বিক্রী হয়ে যাওয়ার ঘটনার তদন্তৃ প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। উক্ত প্রতিবেদন জেলা প্রশাসকসহ উর্ধ্বতন কর্র্তপক্ষের কাছে প্রেরন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে যে দোকানে বই বিক্রী করা হয়েছিল সেই দোকান থেকে বইগুলো জব্দ করে সরকারি হেফাজতে নিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার অফিস গোডাউনে সংরক্ষন করে সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। নির্বাহী কর্মকর্তা ও উক্ত বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ মাসুম বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন এটা গোপনীয় বিষয় তবে যা প্রকাশিত হয়েছে সেটার সাথে মিল রয়েছে। এ ঘটনাটি যখন সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের কাছ অবগত হয়ে খুব দ্রুত গত ১৪ এপ্রিল তদন্ত কমিটি গঠিত করি এবং গত ১৬ এপ্রিল তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিলের নিদৃষ্ট সময়ের মধ্য প্রতিবেদন দাখিল করেন কমিটি। উক্ত প্রতিবেদন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রেরন করা হয়েছে, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে প্রয়োজনী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
উল্লেখ্য এক হাজার চারশত একাত্তর কেজী পুরাতন বই নবীনগর বাজারের ঠুংগা ব্যবসায়ী মো. শহিদ মিয়ার কাছে বিক্রী করেন ওই স্কুলের শিক্ষক নিহার রঞ্জণ চক্রবর্তী। এ ব্যাপারে খন্ডকালিন শিক্ষক নিহার রঞ্জন বাবু বলেন, প্রধান শিক্ষকের অনুমতিক্রমেই পরিত্যক্ত এসব বই বিক্রী করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাউছার বেগম বলেন, বইয়ের গোডাউনের দায়িত্ব ছিল নিহার রঞ্জন বাবু কাছে, পুরাতন এ গোডাউন ভবন ভেংগে নতুন ভবন নির্মানের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেওয়ায় ওই ভবনের বইগুলো সরানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল,বিক্রী করবে এটা আমি জানিনা।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com