হিন্দু ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক যুবক গ্রেফতার

26 May, 2019 : 2:21 pm ১৮৭

কুমিল্লা।।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মো. ময়নুল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হিন্দু ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। ময়নুল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

তবে অভিযোগ রয়েছে, ময়নুল নিজের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করতে গেলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের কথা বলে আটকে রাখা হয়। পরে ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

জানা যায়, গত ১৯ মে রাতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গ্রুপে ‘‘Shamol Chandra Das’ নামের একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টের একটি পোস্টের স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়ে। স্ক্রিনশটে ময়নুল ইসলাম আবির নামের আইডি থেকে একটি পেজে হিন্দু ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করা হয়।

এদিকে ঘটনার পর ওই শিক্ষার্থী নিজের ফেসবুক ওয়ালে একটি পোস্ট দিয়ে জানান, হিন্দু ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে করে তার নামে যে পোস্টটির কথা বলা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। কেউ তার নাম এবং ছবি ব্যবহার করে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে এমন মন্তব্য করে তাকে ফাঁসাতে চাচ্ছেন।

ময়নুল বলেন, তাকে ফাঁসিয়ে একটি সাম্প্রদায়িক সংঘাত তৈরির জন্যই একটি মহল ইচ্ছাকৃতভাবে তার নামে অ্যাকাউন্ট খুলে তা দিয়ে সাম্প্রদয়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করছে।

এ ঘটনার পর সোমবার ময়নুল কুমিল্লা কোতোয়ালী মডেল থানায় নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করতে যান ময়নুল। সেখানে তিনি জিডি লিখে জমা দেওয়ার শেষ মুহূর্তে জিডি না নিয়ে তাকে ডিবি অফিসে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় তার সঙ্গে কাউকে দেখা করতে বা কথা বলতে দেয়নি পুলিশ।

জিডি করতে যাওয়ার সময় তার সঙ্গে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী মাজহারুল ইসলাম হানিফ।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় ময়নুল জিডি করতে গেলে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ময়নুলকে রেখে দেন। এরপর রাতে খোঁজ নিলে জিজ্ঞাসাবাদে আরও সময় লাগবে বলে জানায়। পরে জানতে পারি তাকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কুমিল্লা জেলা ডিবি পুলিশের ওসি মো. মাইনুউদ্দিন বলেন, ময়নুলকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। এ বিষয়ে আরও অধিকতর তদন্তের জন্য রিমান্ড চাওয়া হবে। তদন্ত শেষে এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য দেয়া সম্ভব হবে।

ময়নুলের বিরুদ্ধে হিন্দু ধর্ম নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার যে অভিযোগ তার কোনো সত্যতা পাওয়া গেছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। আরও অধিকতর তদন্তের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

[gs-fb-comments]