বখাটের হাতথেকে রক্ষাপেতে সরাইলেএক স্কুলছাত্রী ইউএনও’কে চিঠি

7 August, 2019 : 7:17 am ১৭১

ব্রাক্ষনবাড়িয়া।।

বখাটের সঙ্গে বিয়ে থেকে রক্ষা পেতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের এক স্কুলছাত্রী ইউএনও’কে চিঠি লিখেছেন। সে সরাইলের বেড়তলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

মঙ্গলবার ওই বিদ্যালয়েরই এক ছাত্রী সরাইলের ইউএনও’র কার্যালয়ে গিয়ে চিঠিটি পৌঁছে দেন। এর আগে সোমবার একই চিঠি আশুগঞ্জের ইউএনওকেও দেয়া হয়।

চিঠিতে ওই ছাত্রী জানায়, সে বেড়তলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। চার বছর আগে তার বাবা খুন হন। সেই থেকে তার পরিবারের লোকজন অত্যন্ত অসহায়। বইগর গ্রামের শেখ সাদি ভূঁইয়ার বখাটে ছেলে উছমান ভূঁইয়া প্রায়ই তাকে উত্ত্যক্ত করে। এ নিয়ে উছমানের পরিবারের কাছে বিচার চাওয়ায় ওই বখাটে জোরপূর্বক তাকে বিয়ের ঘোষণা দেয়।

কয়েকদিন আগে ওই বখাটের পক্ষে গ্রামের মেম্বার নুরুল ইসলাম, সজিব ভূঁইয়া, আকবর ভূঁইয়া, মলাই ভূঁইয়া ও শাহআলম ভূঁইয়া তার বাড়িতে গিয়ে মাকে হুমকি দিয়ে উছমানের সঙ্গে তার বিয়ের কথা পাকা করেন।

চিঠিতে তিনি আরো উল্লেখ করেন, তার বড় বোন এখনো অবিবাহিত। বিয়ে ঠিক হওয়ার পর থেকেই তিনি নিজ বাড়ি থেকে পালিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। ৩ আগস্ট বখাটে উছমান সেখান থেকে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ারও চেষ্টা করে।

তিনি বলেন, আমার বিয়ের বয়স হয়নি। আমি পড়ালেখা করতে চাই। এই বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেতে সবার সহযোগিতা চাচ্ছি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সরাইলের ইউএনও আবু সালেহ মো. মোসা বলেন, তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। বিষয়টি নিয়ে আশুগঞ্জ ইউএনওর সঙ্গে আমি কথা বলবো।

আশুগঞ্জের ইউএনও মো. নাজিমুল হায়দার বলেন, তার চিঠির প্রেক্ষিতে ওই বখাটে ছেলেসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে আমি ডেকে পাঠিয়েছি।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com