ব্রাক্ষনবাড়িয়ায় পুলিশের বিশেষ শাখার এক সিভিল সদস্যের গলা কেটে টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা। এতে প্রাণনাশের আশঙ্কা না থাকলেও গুরুতর আহত হয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। শুক্রবার রাত আটটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুহিলপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার উচ্চমান সহকারী (সিভিল) পদে কর্মরত রয়েছেন সরাইল উপজেলার হারুনুর রশিদ। আজ শুক্রবার ছুটি থাকায় তিনি গ্রামের বাড়ি গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফেরার সময় তার সাথে সিএনজিতে আরো ৪ জন যাত্রী উঠেন। সিএনজিটি ছাড়ার পর কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের সুহিলপুরে পৌঁছালে সাথে থাকা যাত্রী বেশে ছিনতাইকারীরা তাকে ঝাপটে ধরেন ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন। এসময় হারুন তাদের বাধা দিতে চাইলে তার গলায় একাধিক ছুড়িকাঘাত করে সাথে সাথে থাকা ১৪শত টাকা ছিনিয়ে নিয়ে চলন্ত সিএনজি থেকে ছুড়ে ফেলে দেন। তবে যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীরা হারুনের মোবাইল ফোনটি ছুড়ে ফেলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। খবর পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকতারা হাসপাতালে তাকে দেখতে আসেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতিকুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। পাশাপাশি অপরাধীদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।"/>

ব্রাক্ষনবাড়িয়ায় পুলিশের ডিএসবির এক সিভিল সদস্যের গলা কেটে ছিনতাই

21 September, 2019 : 6:37 am ২৭৪

ব্রাক্ষণবাড়িয়া।।

ব্রাক্ষনবাড়িয়ায় পুলিশের বিশেষ শাখার এক সিভিল সদস্যের গলা কেটে টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা। এতে প্রাণনাশের আশঙ্কা না থাকলেও গুরুতর আহত হয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। শুক্রবার রাত আটটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুহিলপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার উচ্চমান সহকারী (সিভিল) পদে কর্মরত রয়েছেন সরাইল উপজেলার হারুনুর রশিদ। আজ শুক্রবার ছুটি থাকায় তিনি গ্রামের বাড়ি গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফেরার সময় তার সাথে সিএনজিতে আরো ৪ জন যাত্রী উঠেন। সিএনজিটি ছাড়ার পর কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের সুহিলপুরে পৌঁছালে সাথে থাকা যাত্রী বেশে ছিনতাইকারীরা তাকে ঝাপটে ধরেন ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন। এসময় হারুন তাদের বাধা দিতে চাইলে তার গলায় একাধিক ছুড়িকাঘাত করে সাথে সাথে থাকা ১৪শত টাকা ছিনিয়ে নিয়ে চলন্ত সিএনজি থেকে ছুড়ে ফেলে দেন। তবে যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীরা হারুনের মোবাইল ফোনটি ছুড়ে ফেলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

খবর পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকতারা হাসপাতালে তাকে দেখতে আসেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতিকুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। পাশাপাশি অপরাধীদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com